ডার্বিতেই ময়দানে অভিষেক ঘটতে চলেছে কোস্টা রিকার বিশ্বকাপার জনি আকোস্তার। রবিবারই প্রথম বার লাল-হলুদ জার্সিতে তিনি মাঠে নামছেন। আর সেটাও চির প্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগানের বিরুদ্ধে। ফলে, যুবভারতী স্টেডিয়ামে তাঁর দিকে নজর থাকবেই ফুটবলমহলের।

প্রশ্ন হল, সদ্য রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলে আসা ডিফেন্ডারের কড়া চ্যালেঞ্জ কতটা ফাঁকি দিতে পারবেন মোহনবাগানের ফরোয়ার্ডরা? ক্যামেরুনের স্ট্রাইকার দিপান্দা ডিকা চলতি কলকাতা লিগে প্রায় একাই টানছেন মোহনবাগানকে। সাত গোল করে ফেলেছেন তিনি। লিগে এখনও পর্যন্ত তিনিই সর্বাধিক গোলদাতা। স্বাভাবিক ভাবেই তাঁর কাছে থাকছে গোলের প্রত্যাশা। সদস্য-সমর্থকরা শনিবার সকালে তাঁর কাছেই গোলের প্রার্থনা করলেন। প্রত্যাশার একটা আলাদা চাপ থাকে। ডিকা যা টের পাচ্ছেন। তবে তিনি নিজের ওপর চাপ কমাতে টিমগেমের পতাকা তুলে ধরছেন।

জনি আকোস্তা বনাম দিপান্দা ডিকাতে অবশ্য মোহনবাগান স্ট্রাইকারের ঘোর আপত্তি। বরং জনি আকোস্তা বনাম ডিকা প্লাস হেনরি কিসেক্কা হিসেবে দেখতে চাইছেন তিনি। বলছেন, গোল করার লোক দলে অনেক রয়েছে। এটা ঘটনা যে, উগান্ডার স্ট্রাইকার কিসেক্কাও কলকাতা লিগে রয়েছেন গোলের মধ্যে।

আরও পড়ুন: ব্রিজে সোনা আনলেন দুই বাঙালি, বক্সিংয়েও এল সোনা

আরও পড়ুন: সচিনের আগে টেস্টে ছ’হাজারে বিরাট, দেখুন প্রথম দশে কারা​

কিন্তু, জনি আকোস্তার বিরুদ্ধে ডিকা-কিসেক্কা জুটি কি বাজিমাত করতে পারবে? মোহন শিবিরের যা খবর, তাতে বিশ্বকাপারকে বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছে না সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। বিপক্ষ নিয়ে নয়, গোলের রাস্তা কী ভাবে খোলা যাবে, সে দিকেই থাকছে নজর। বাগান কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী আলাদা করে ছকও কষেছেন স্ট্রাইকারদের নিয়ে। নানা রকম মুভের অনুশীলন করিয়েছেন। হয়েছে সেটপিসের অনুশীলনও। ঘনিষ্ঠ মহলে ডিকা সাফ বলেছেন, প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার নয়, তাঁর লক্ষ্য তেকাঠিতে বল রাখা। জালে বল জড়ানো। আর সেই দায়িত্ব তিনি একা নিচ্ছেন না। সঙ্গে পাচ্ছেন কিসেক্কাকে।

কলকাতা লিগ অনেক বছর পায়নি মোহনবাগান। এ বার লিগ জেতার হাতছানি রয়েছে। তবে তার জন্য ডার্বিতে ইতিবাচক ফলাফল দরকার। কারণ, সাত ম্যাচে দুই দলেরই পয়েন্ট এখন ১৯। মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল, দুই দলই জিতেছে ছয়টি করে ম্যাচ। গোল পার্থক্যেও দুই দল একবিন্দুতে দাঁড়িয়ে। মোহনবাগান ১৬ গোল দিয়েছে, খেয়েছে তিন গোল। ইস্টবেঙ্গল ১৪ গোল দিয়েছে, খেয়েছে ১ গোল। এই পরিস্থিতিতে লিগের ভাগ্য অনেকটাই নির্ভর করছে ডার্বির ওপর। আর ডার্বির গতিপথ আবার নির্ভর করছে জনি আকোস্তা বনাম বাগান ফরোয়ার্ডদের লড়াইয়ের ওপর।

(খেলা মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল থেকে এটিকে। কলকাতা ডার্বি, আইলিগ থেকে আইএসএল, কলকাতা ময়দানের সমস্ত খবর জানতে পড়ুন আমাদের খেলা বিভাগ।)