জনপ্রিয় টক শো-তে বিতর্কিত মন্তব্যের মাশুল গুনতে হচ্ছে হার্দিক পাণ্ড্য ও লোকেশ রাহুলকে। ক্ষমা চেয়েও বিশেষ লাভ হয়নি। অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝপথ থেকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে তাঁদের। জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা অবস্থায় এক জন খেলোয়াড়ের জনসমক্ষে ব্যবহার ঠিক কেমন হওয়া উচিত? তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ ছিলেন এক ভারতীয়ই। তিনি রাহুল দ্রাবিড়।

সম্প্রতি রাহুল দ্রাবিড়ের সাক্ষাত্কারের একটি পুরনো ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। সেই ভিডিয়োয় দেখিয়ে দিচ্ছে সাক্ষাত্কার নেওয়া তরুণীর প্রলোভন ও আবদার বাউন্ডারির বাইরে হেলায় উড়িয়ে নিজের অবস্থানে অনড় থাকছেন তিনি।

এমটিভিতে সম্প্রচারিত ওই সাক্ষাত্কারে ওই তরুণী দ্রাবিড়কে জিজ্ঞাসা করছেন, ‘‘চারিদিকে প্রচুর ভক্ত আপনার। এত বিখ্যাত হওয়ার অনুভূতি কেমন?’’ উত্তরে রাহুল বললেন, ‘‘আপনাকে বুঝতে হবে আপনি কী জন্য বিখ্যাত। সেই কাজটা করতে পারলে বিশেষ অনুভূতি এমনিতেই আসবে।’’

আরও পড়ুন: ভারতের হয়ে একদিনের ফরম্যাটে দশ হাজারে পৌঁছতে ধোনির চাই মাত্র ১ রান

এ ভাবে এগিয়ে যেতে থাকে সাক্ষাত্কার পর্ব। সাক্ষাত্কারের শেষে তরুণী সঞ্চালক বলেন, ‘‘হ্যাঁ, এটাই হল রাহুল দ্রাবিড়।’’ ইন্টারভিউ শেষ হয়। কিন্তু মূল ঘটনার শুরু তারপর।

অফিসিয়াল ক্যামেরা বন্ধ থাকলেও ওই ঘরে চালু ছিল স্পাই ক্যাম। সেখানেই ধরা পড়ে ‘দ্য ওয়াল’-এর দৃঢ়তা। যদিও দ্রাবিড় জানতেন না যে, কোনও ক্যামেরা তখনও চলছে।

সাক্ষাত্কারের পর বিশ্রামের ভঙ্গিমায় বসে খাবার খেতে শুরু করেন দ্রাবিড়। তখন সঞ্চালক তরুণী বিপরীত দিকে বসে থাকা আসন ছেড়ে রাহুলের পাশে এসে বসেন। আর পাঁচজন ভক্তের মতোই দ্রাবিড়কে তিনি বলতে শুরু করেন, “আমিও আপনার ভক্ত। আপনাকে টিভিতে দেখতে পেলেই আমার অন্য রকমের অনুভূতি হয়। তাই আমি একটা কথা আপনাকে জিজ্ঞাসা করতে চাই।”

 

তারপরই ওই তরুণী স়ঞ্চালক দ্রাবিড়কে বলে বসেন, ‘‘রাহুল, আপনি আমাকে বিয়ে করবেন?” এই শুনেই আসন ছেড়ে মহিলার থেকে দু’পা পিছিয়ে যান রাহুল। তরুণী তখনও বলতে থাকেন, ‘‘প্লিজ..প্লিজ...’’ এই শুনে দ্রাবিড়ের উত্তর, ‘‘আপনি পাগল?”

এই বলে ঘর থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন দ্রাবিড়। তখন ওই তরুণী এক জনকে ডেকে আনেন। তিনি এসে রাহুলকে শান্ত করে সোফায় বসান। তখন দ্রাবিড় ওই তরুণীকে জিজ্ঞাসা করেন,“তোমার বয়স কত?’’ উত্তরে তরুণী জানান তাঁর বয়স কুড়ি। তখন দ্রাবিড় ওই তরুণীকে বলেন, ‘‘আমার মনে হয় তোমার পড়াশোনায় আরও মনযোগী হওয়া উচিত।’’ দ্রাবিড়কে সমর্থন করেন ওই তৃতীয় ব্যক্তিও। বিয়ের ভূত এই বয়সে মাথা থেকে সরিয়ে ফেলার উপদেশও দেন রাহুল। এখানেই শেষ হয় ভিডিয়োটি।

হার্দিকদের ওই ঘটনার পর এই ভিডিয়ো এখন ইন্টারনেট দুনিয়ায় নতুন আলোড়ন ফেলেছে।

আরও পড়ুন: হার্দিক, রাহুলের দুই ম্যাচ নির্বাসন চাইছেন সিওএ প্রধান বিনোদ রাই

 

(খেলার দুনিয়া নিয়েবাংলায় খবরপড়তে চোখ রাখুন আমাদেরখেলাবিভাগে।)