বিরাট কোহালিদের কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রবি শাস্ত্রী। অঘটন কিছু না ঘটলে কপিল দেব নিখাঞ্জের ক্রিকেট অ্যাডভাইজরি কমিটি শাস্ত্রীকেই বেছে নেবে চিফ কোচ হিসেবে।

ক্রিকেট অ্যাডভাইজারি কমিটি (সিএসি) ইন্টারভিউয়ের জন্য আরও পাঁচ জনকে বেছে নিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার টম মুডি, নিউজিল্যান্ডের মাইক হেসন ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফিল সিমন্স ছাড়াও রয়েছেন লালচাঁদ রাজপুত ও রবিন সিংহ। সূত্রের খবর, ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড কোচ বদলাতে চাইছে না। ফলে শাস্ত্রীর কোচ হওয়া কেবল সময়ের অপেক্ষা।

বোর্ড সূত্রে খবর, বো‌লিং কোচ হিসেবে ভরত অরুণকে ফের সুযোগ দেওয়া হবে। হেড কোচ ও বোলিং কোচের পরিবর্তন হচ্ছে না। কিন্তু, নতুন ব্যাটিং ও ফিল্ডিং কোচ নেওয়া হতে পারে। ব্যাটিং কোচ হিসেবে বিক্রম রাঠৌরের নাম ভাসছে। তবে ফিল্ডিং কোচ বদল হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। এত দিন এই দায়িত্বে ছিলেন শ্রীধর। কিন্তু এই পদের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ক্রিকেটার জন্টি রোডস আবেদন করায় কঠিন হয়েছে শ্রীধরের লড়াই।

আরও পড়ুন: কিউয়িদের হয়ে পাঁচ উইকেট নিলেন মুম্বইয়ের এই স্পিনার, চেনেন এঁকে?

আরও পড়ুন: শ্রেয়সে উচ্ছ্বসিত, চোট নিয়ে চিন্তা নেই কোহালির

জানা গিয়েছে, হেড কোচ হবেন যিনি, তাঁর সঙ্গে ২০২১ সাল পর্যন্ত চুক্তি করা হবে। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালের পরে রবি শাস্ত্রীকে কোচ নিয়োগ করা হয়। ২০১৭ সালের পর থেকে ভারত ২১টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে। তার মধ্যে ১৩টি ম্যাচেই ভারত জিতেছে। শাস্ত্রীর কোচিংয়ে খেলা ৩৬ টি টি টোয়েন্টি ম্যাচের মধ্যে ২৫ টি ম্যাচেই জিতেছে টিম ইন্ডিয়া। ৬০টি ওয়ানডে-র মধ্যে ৪৩টিতেই ভারতীয় দল জিতেছে। এই রেকর্ড শাস্ত্রীর হয়েই কথা বলছে। হেড কোচ হিসেবে তাঁর নাম ঘোষণা কেবল সময়েরই অপেক্ষা।