রাজকোটে ভারত-বাংলাদেশ দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নতুন এক পালক জুড়ে গেল রোহিত শর্মার মুকুটে। ভারতের হয়ে তিনিই হলেন প্রথম ক্রিকেটার, যিনি ১০০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেললেন। আন্তর্জাতিক মঞ্চে রোহিত হলেন দ্বিতীয় ক্রিকেটার, যিনি এই কৃতিত্ব স্পর্শ করলেন। সব চেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার রেকর্ড রয়েছে পাকিস্তানের শোয়েব মালিকের (১১১)। 

যে ম্যাচে আবার তিনিই নায়ক। ভারতকে জিতিয়ে ম্যাচের শেষে রোহিত বলেন, ‘‘ব্যাট হাতে নামলে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি। জানতাম, পরিস্থিতি আমার পক্ষে। তাই বল উড়িয়ে দেওয়াই লক্ষ্য ছিল।’’

নিজের এই কৃতিত্ব নিয়ে রোহিত বলেছেন, ‘‘আমি কোনও দিন ভাবিনি এতগুলো ম্যাচ খেলার সুযোগ পাব। এই সুযোগ পাওয়ার জন্য আমি কৃতজ্ঞ।’’ সঙ্গে এ দিনের জয় প্রসঙ্গে যোগ করেন, ‘‘রাজকোটের পিচে রান  আসে। এটাও জানতাম এই পিচে দ্বিতীয় ইনিংসে বোলাররা সমস্যার পড়ে। আমরা সেই সুবিধা নিয়ে পাওয়ার প্লে-তে দারুণ খেলায় কাজটা সহজ হয়ে গিয়েছিল।’’ 

আরও একটা ব্যাপারে খুশি রোহিত। সেটা হল, ভারতের মাটিতে ১০০তম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাওয়া। বিরাট কোহালির জায়গায় এই টি-টোয়েন্টি সিরিজে দেশকে নেতৃত্ব দেওয়া রোহিত বলছেন, ‘‘দেশের মাঠে ১০০তম ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলাম। এটা আমার কাছে একটা গর্বের ব্যাপার।’’

দুরন্ত শট নেওয়ার ক্ষমতার জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁকে ডাকা হয় ‘হিটম্যান’ বলে। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে চারটে সেঞ্চুরি হয়ে গিয়েছে রোহিতের। আইপিএল থেকে ভারতীয় দল— সবার জার্সিতে দাপিয়ে বেরিয়েছেন সর্বত্র। এত সব ইনিংসের মধ্যে থেকে সেরা বেছে নিতে বললে আপনার জবাব কী হবে? রোহিত কিন্তু বিশেষ কোনও ইনিংসকে বেছে নিতে চান না। দলকে জেতাতে পারলেই তিনি খুশি। ‘হিটম্যান’ বলেছেন, ‘‘কোনও একটা ইনিংসকে আলাদা করে বেছে নিতে পারব না। আমার সব ইনিংসকেই আমি ভালবাসি। যোগ করছেন, ‘‘আরও অনেক স্মরণীয় ইনিংস খেলার দিকে তাকিয়ে আছি।’’