নীল জার্সিতে মহেন্দ্র সিংহ ধোনির ভবিষ্যত্ নিয়ে জল্পনার মাঝেই তাঁর আইপিএল ভবিষ্যত্ নিয়ে মন্তব্য করলেন নারায়ণস্বামী শ্রীনিবাসন। ভারতীয় ক্রিকেটে শ্রীনি-ধোনি রীতিমতো হিট জুটি। দু’জনের সম্পর্ক বরাবরই ভালো। অধিনায়ক থাকাকালীন সব ব্যাপারে তৎকালীন বোর্ড প্রেসিডেন্ট শ্রীনিবাসনের সহায়তা পেয়ে এসেছেন ‘ক্যাপ্টেন কুল’।

এই মুহূর্তে অবশ্য ধোনির ক্রিকেট ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা চলছে। ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর জাতীয় দলের হয়ে খেলেননি এমএসডি। দুই মাস বিশ্রাম নিয়েছিলেন তিনি। ফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের স্কোয়াডেও তিনি নেই।

এই আবহে বারবার ধোনির অবসর নিয়ে চলছে চর্চা। কয়েক দিন আগে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালির এক টুইটকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই আলোচনা গতি পায়। পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় যে, ধোনির স্ত্রী সাক্ষীকে টুইট করে পুরোটাই গুজব বলে জানাতে হয়। কোহালি পরে জানান যে তাঁর টুইটের ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: গভীর অনিশ্চয়তায় দীপার কেরিয়ার, এই মুহূর্তে অলিম্পিক্স নিয়ে ভাবছেনই না কোচ​

আরও পড়ুন: চার টেস্টে ৭৭৪ রান! গাওস্করকে স্পর্শ করলেন স্টিভ স্মিথ​

সামনের বছর অস্ট্রেলিয়ায় বসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। সেই দলে জাতীয় নির্বাচকরা ধোনির কথা মাথায় রাখছেন কি না তা পরিষ্কার নয়। তবে ভবিষ্যতের জন্য ঋষভ পন্থকে তৈরি করার উদ্যোগ ফুটে উঠছে দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে। যদিও তাঁর শট বাছাইয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট নয় দল। কোচ রবি শাস্ত্রীর মন্তব্যেই তা প্রতিফলিত।

ধোনির অবসর নিয়ে প্রশ্নে কোহালি বলেছেন, অবসরের সিদ্ধান্ত নিতে পারেন শুধু ধোনিই। তবে তাঁর অগাধ অভিজ্ঞতার কোনও বিকল্প নেই। আর এই সময়েই ধোনিকে নিয়ে মুখ খুলেছেন প্রাক্তন বোর্ড প্রেসিডেন্ট নারায়ণস্বামী শ্রীনিবাসন। আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের মালিক ইন্ডিয়া সিমেন্টসের তিনি ম্যানেজিং ডিরেক্টর। তবে জাতীয় দলে ধোনি ফিরবেন কি না তা নিয়ে কোনও কথা তিনি বলেননি। অবসরের ব্যাপারেও মতামত দেননি। শুধু বলেছেন যে আগামী বছরের আইপিএলে ধোনিই নেতৃত্ব দেবেন সিএসকে দলকে। তাঁর কথায়, “আমি একটা কথাই শুধু বলব। পরের বছর চেন্নাই সুপার কিংসেরও ক্যাপ্টেন থাকবে ধোনি।” শ্রীনির এই বক্তব্য ধোনি-ভক্তদের অবশ্যই স্বস্তি দেবে।