• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ইতিহাস গড়ার ডাক স্টিভের

Steve
দায়িত্ব: অ্যাশেজ শুরু হওয়ার আগে অস্ট্রেলীয় নেটে পরামর্শদাতা হিসেবে উপস্থিত প্রাক্তন অধিনায়ক স্টিভ ওয়। সাউদাম্পটনে। গেটি ইমেজেস

অ্যাশেজ শুরু হওয়ার আগে পরামর্শদাতার ভূমিকায় স্টিভ ওয়। রবিবার এজবাস্টনে মার্নাস লাবুশাগনের কিছু ভুল সংশোধন করতেও দেখা যায় তাঁকে। দিনের শেষে জানিয়ে দিলেন, এ বারের অ্যাশেজ হয়তো সব চেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হতে চলেছে। 

এ দিন অস্ট্রেলিয়ার অনুশীলন শেষে প্রাক্তন অধিনায়ক স্টিভ বলেন, ‘‘এ বারের অ্যাশেজ যে কোনও দলের হতে পারে। তবে পেসারদের ভূমিকা সব চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। ছয় সপ্তাহের মধ্যে পাঁচটি টেস্ট খেলতে হবে। কী ভাবে নিজেদের ওরা ফিট রাখে সেটাই দেখার।’’

স্টিভ জানিয়েছেন, যে দলের রিজার্ভ বেঞ্চ শক্তিশালী হবে, তাদের কাছে জেতার সুযোগ বেশি। বলছিলেন, ‘‘বড় প্রতিযোগিতায় চোট পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই রিজার্ভ বেঞ্চের ভূমিকা অনেক বড়। তবে আমাকে যদি জিজ্ঞেস করা হয়, তা হলে কোনও দলের পক্ষেই আমি ভোট দেব না। যে কেউ জিততে পারে।’’

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ জেতায় কি ওরা কিছুটা এগিয়ে থাকবে? স্টিভের উত্তর, ‘‘ওয়ান ডে-র সঙ্গে টেস্টের কোনও তুলনা চলে না। দু’টি ভিন্ন মানসিকতার ক্রিকেট। পরামর্শদাতা হিসেবে প্রথম দিনই প্রত্যেককে বলে দিয়েছি, ইতিহাস গড়ার জন্য ঝাঁপাও। তবেই সাফল্য আসবে।’’

অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক টিম পেনের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ ওয়। বলছিলেন, ‘‘অসাধারণ অধিনায়ক পেন। ও জানে জিততে গেলে বিপক্ষকে কোনও সুযোগ দেওয়াই চলবে না।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন