• কৌশিক দাশ
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভারতীয় পেস বোলিং নিয়ে উচ্ছ্বসিত বিশ্বজয়ী কোচও

Trevor Bellis
অভিভূত: শামি-বুমরার আগ্রাসনে মুগ্ধ বেলিস। ফাইল চিত্র

Advertisement

মহম্মদ শামির অবিশ্বাস্য উত্থানে তিনি বিস্মিত নন। কেন শামি দ্বিতীয় ইনিংসে এত ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছেন, তার একটা ব্যাখ্যাও আছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এই কোচের কাছে। আর এখন বিশ্বসেরা পেসারদের তালিকায় কোথায় রাখবেন শামিকে, এই প্রশ্নের উত্তরও সটান দিয়ে দিচ্ছেন তিনি। ট্রেভর বেলিস অকপটে বলে দিচ্ছেন, বিশ্বের প্রথম চারে রাখতেই হবে এই ভারতীয় পেসারকে।

কলকাতা নাইট রাইডার্সকে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন করেছেন। ইংল্যান্ডকে ৫০ ওভারের ক্রিকেটে বিশ্বজয়ী। এই মুহূর্তে ইংল্যান্ডের প্রাক্তন কোচ বেলিস আছেন সংযুক্ত আরব আমিরশাহির আবু ধাবিতে। যেখানে টি-টেন ক্রিকেট লিগের আবু ধাবি দলের কোচ তিনি। শনিবার স্থানীয় সময় দুপুরে যখন আনন্দবাজারের সঙ্গে কথা বলছিলেন বেলিস, ইনদওরে একটার পর একটা উইকেট হারিয়ে হাবুডুবু খাচ্ছে বাংলাদেশ। আর দ্বিতীয় ইনিংসে বিধ্বংসী হয়ে উঠেছেন সেই মহম্মদ শামি। 

কেন শামি দ্বিতীয় ইনিংসে এত বেশি ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন? বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন কোচ বলছেন, ‘‘দুটো কারণের কথা আমি বলতে চাই। এক, শামির উচ্চতা সে রকম বেশি না হওয়ায় (পাঁচ ফুট দশ ইঞ্চির আশেপাশে) ওর বোলিং আর্ম অন্য অনেক লম্বা বোলারের মতো অত উপরে ওঠে না। যার ফলে বল বাউন্স হওয়ার বদলে একটু বেশি স্কিড (উইকেটে পড়ে দ্রুত ব্যাটসম্যানের কাছে চলে আসে) করে।’’ দু’নম্বর কারণটা কী? বেলিসের ব্যাখ্যা, ‘‘টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেট একটু খরখরে হয়ে যায়, মাঝে মাঝে ভেঙে যায়। সেখানে শামির এই ধরনের বল সামলানো ব্যাটসম্যানদের পক্ষে কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। গতির সঙ্গে বল ভিতরেও নিয়ে আসতে পারে ও।’’

ভারতীয় বোলারদের এই ভাবে ঘণ্টায় ১৪০-১৪৫ কিলোমিটার গতিতে বল করতে দেখে চমকে যান অনেকে। আপনিও কি চমকে উঠছেন, অবাক হয়েছেন? ‘‘আমি এটা বুঝেছি, এক দিনে এই জিনিস হয়নি। এর পিছনে অনেকের অনেক অবদান আছে। ভারতীয় পেসাররা এখন কত ফিট। এই ফিটনেস কিন্তু শামিদের ধারাবাহিক সাফল্যের 

অন্যতম কারণ,’’ মন্তব্য বেলিসের।

বিশ্বের সেরা সেরা পেসারদের আপনি দেখেছেন। কোথায় রাখবেন ভারতের এই বোলিং আক্রমণকে? বেলিসের জবাব, ‘‘অবশ্যই একেবারে খুবই উপরে। ওদের দারুণ পেস আক্রমণ, সে রকমই ভাল স্পিনার। যে কোনও দেশে গিয়ে ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা রাখে। সে জন্যই তো ভারত এ রকম ভয়ঙ্কর দল হয়ে উঠেছে।’’

আপনি ইংল্যান্ডকে দীর্ঘদিন কোচিং করিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তানের মতো দলকে কাছ থেকে দেখেছেন। এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা তিনি পেসার বাছতে বললে কাকে কাকে বাছবেন? বেলিসের পাল্টা প্রশ্ন, ‘‘শুধু ভারতীয়দের মধ্যে থেকে?’’ না, না বিশ্বের সব বোলারকে ধরে র‌্যাঙ্কিং করুন। একটু ভেবে বেলিস বললেন, ‘‘দেখুন, অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স এবং জশ হেজলউডকে রাখতেই হবে। আমি তিন নয়, প্রথম চার জনের কথা বলতে চাই। বাকি দু’জন হবে শামি এবং যশপ্রীত বুমরা।’’ শামিকে আপনি কেন প্রথম চারে রাখতে চাইছেন? বেলিসের ব্যাখ্যা, ‘‘শামি এবং বুমরা হল এমন দু’জন পেসার, যারা সব রকম পরিবেশ, পরিস্থিতিতে দুর্দান্ত বল করতে পারে। ওরা অস্ট্রেলিয়ায় ভাল বল করে, ইংল্যান্ডে ভাল বল করে। আবার দেশের মাটিতেও ভাল করে। যে কারণে ওদের সেরাদের তালিকায় রাখতেই হবে।’’            

ভারত যে এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম সেরা দল হয়ে উঠেছে, তার পিছনে এটা একটা বড় কারণ বলে মনে করেন ইংল্যান্ডকে প্রথম বিশ্বকাপ এনে দেওয়া কোচ। অকপটে বেলিস বলছেন, ‘‘তখনই বিশ্বসেরা হতে পারব, যদি আমরা সব দেশে, সব পরিবেশে পারফর্ম করতে পারি। ভারতীয় পেসাররা সেটা করে দেখিয়ে দিয়েছে। যে কারণে ওদের চোখ বন্ধ করে বিশ্বসেরাদের তালিকায় রাখা যায়।’’ আরও একটা কথা বলছেন বেলিস, ‘‘যে কোনও ক্ষেত্রের সেরারাই পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে। যে কোনও ফর্ম্যাটে, যে কোনও পরিস্থিতিতে ভাল খেলার ক্ষমতা রাখে। ভারতীয়রা সেটাই করে দেখাচ্ছে।’’ ইংল্যান্ডের প্রাক্তন কোচের চোখে এখন শামিদের প্রতি তাই শ্রদ্ধাই 

ধরা পড়ছে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন