বিশ্বকাপের পরে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়েছিলেন। কিন্তু তার পরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে সুযোগ পেয়েই দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন যুজবেন্দ্র চহাল। যা মন জয় করেছে এই সিরিজে তাঁর অধিনায়ক রোহিত শর্মারও।

আজ, রবিবার নাগপুরে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ খেলতে নামছে ভারত। সেই ম্যাচের আগে চহালের প্রত্যাবর্তন সম্পর্কে প্রশংসা করে রোহিত জানিয়েছেন, মাঝখানের ওভারগুলিতে নিজের মূল্য ফের বুঝিয়েছে চহাল।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজের ফল আপাতত ১-১। রবিবার নাগপুরে যে দল জিতবে, টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতবে তারাই। সিরিজ নির্ণায়ক সেই ম্যাচের আগে ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা এ দিন চহালের প্রশংসা করে বলেন, ‘‘আমাদের এই দলটায় নতুন মুখ অনেক রয়েছে। কিন্তু চহাল  সাদা বলের ক্রিকেটে গত দু’বছর ধরে যেখানেই সুযোগ পেয়েছে, ধারাবাহিক ভাবে পারফরম্যান্স করেছে। অনেক উন্নতিও করেছে ও। এমনকি ওয়ান ডে ক্রিকেটেও দুর্দান্ত খেলেছে ও।’’ যোগ করেন, ‘‘আইপিএলেও ভাল বল করেছে চহাল। দক্ষতার জন্যই ভারতীয় দলে সুযোগ পেয়েছিল ও। এই মুহূর্তে ভারতীয় দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য চহাল। চলতি সিরিজে ফের প্রমাণ করেছে মাঝের ওভারগুলিতে ও কতটা গুরুত্বপূর্ণ।’’

রাজকোটে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে একই ওভারে মুশফিকুর রহিম ও সৌম্য সরকারের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাদেশের ম্যাচে ফেরার রাস্তা বন্ধ করে দেন এই ভারতীয় লেগস্পিনার।

রোহিত তাঁর দলের এই গুরুত্বপূর্ণ বোলার সম্পর্কে বলেন, ‘‘চহাল জানে ও কী করতে পারে। সঙ্গে এটাও জানে ব্যাটসম্যানেরা কী করতে চলেছে। ওর মস্তিষ্ক ম্যাচ ও ব্যাটসম্যানের আগে চলে। সেই কারণেই ব্যাটসম্যানেদের পক্ষে চহালকে খেলা মুশকিল হয়ে দাঁড়ায়। কারণ ওর বলে বৈচিত্র প্রচুর।’’

ভারত অধিনায়ক আরও বলেন, ‘‘টি-টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে এত গুণ থাকলে সে সফল হবেই। পাওয়ার প্লে ও মাঝের ওভারগুলিতে চহাল খুব ভাল বোলার। এমনকি শেষের দিকের ওভারেও বল করতে ভয় পায় না ও। আমি ১৮তম ওভারেও চহালের হাতে বল তুলে দিয়ে দেখেছি, ভালই চাপে রাখছে বিপক্ষকে।’’