Advertisement
০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Novak Djokovic

আবার হার মানল চোট! স্ট্রেট সেটে রুবলেভকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শেষ চারে জোকোভিচ

চোট থামাতে পারছে না নোভাক জোকোভিচকে। ছুটছে তাঁর অশ্বমেধের ঘোড়া। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে আন্দ্রে রুবলেভকে স্ট্রেট সেটে হারালেল নোভাক।

চোট থামাতে পারছে না জোকোভিচকে। আবার স্ট্রেট সেটে জিতলেন নোভাক। চলে গেলেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে।

চোট থামাতে পারছে না জোকোভিচকে। আবার স্ট্রেট সেটে জিতলেন নোভাক। চলে গেলেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে। ছবি: রয়টার্স

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩ ১৬:২১
Share: Save:

আবার চোটকে হারিয়ে দিলেন নোভাক জোকোভিচ। তাঁর খেলা দেখে মনে হচ্ছে, এ বার তিনি নেমেছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিততে। গত বার খেলতে না দেওয়ার জবাব দিতে। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট তাঁকে থামাতে পারে, এমন সাধ্য কোথায়! একের পর এক প্রতিপক্ষকে স্ট্রেট সেটে হারিয়ে দিচ্ছেন নোভাক। কোয়ার্টার ফাইনালেও সেটাই দেখা গেল। পঞ্চম বাছাই রাশিয়ার আন্দ্রে রুবলেভকে স্ট্রেট সেটে হারিয়ে দিলেন জোকোভিচ। খেলার ফল তাঁর পক্ষে ৬-১, ৬-২, ৬-৪।

Advertisement

হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পাওয়ায় বাঁ পায়ের উরুতে একটি ব্যান্ডেজ বেঁধে খেলছেন জোকোভিচ। আগের ম্যাচে অ্যালেক্স ডি’মিনরের বিরুদ্ধেও ব্যান্ডেজ বেঁধে খেলেছিলেন জোকোভিচ। এই ম্যাচেও সেটা দেখা গেল। কিন্তু ব্যান্ডেজ বেঁধে খেলার জন্য কোর্টে নড়াচড়া করতে কোনও সমস্যা হল না সার্বিয়ার খেলোয়াড়ের। গোটা ম্যাচে দাপট দেখিয়ে খেললেন। প্রতিপক্ষকে নাজেহাল করে ছাড়লেন। তিন সেটে মাত্র ৭টি গেম জিততে পেরেছেন রুবলেভ। এই পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে, কতটা দাপট দেখিয়ে খেলেছেন জোকোভিচ।

খেলার শুরু থেকেই ছন্দে খেলছিলেন জোকোভিচ। নিজের সার্ভিস ধরে রেখে রুবলেভের সার্ভিস ভাঙার পরিকল্পনা করেছিলেন তিনি। প্রথম সেটে দাঁড়াতেই পারেননি রুবলেভ। ৬-১ প্রথম সেট জিতে নেন জোকোভিচ। তাঁর গতি, পাওয়ারফুল সার্ভিস সমস্যায় ফেলে দিয়েছিল রুবলেভকে। দ্বিতীয় সেটেও দেখা যায় একই ছবি। নিজের সার্ভিস ধরে রাখতে পারছিলেন না রুবলেভ। স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল, চাপে পড়ে গিয়েছিলেন তিনি। আনফোর্সড এরর করছিলেন। অন্য দিকে ঠান্ডা মাথায় ম্যাচ বার করে নিয়ে যাচ্ছিলেন জোকার। তাঁর মুখে ধরা পড়ছিল প্রত্যয়। দ্বিতীয় সেটও ৬-২ জিতে যান জোকোভিচ।

তৃতীয় সেটে কিছুটা লড়াই দেন রুবলেভ। খেলা যত গড়াচ্ছিল, তত নিজের চোট সামলে খেলছিলেন জোকোভিচ। তার মধ্যেই শরীর ছুড়ে দিয়ে রিটার্ন করতে দেখা গেল তাঁকে। জোকোভিচের প্রতিটি উইনারের পরে সমর্থকদের হাততালির শব্দে রড লেভার এরিনায় কান পাতা যাচ্ছিল না। শেষ পর্যন্ত তৃতীয় সেট ৬-৪ জিতলেন জোকোভিচ। সেমিফাইনালে আমেরিকার টমি পলের বিরুদ্ধে খেলবেন জোকোভিচ।

Advertisement

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আগে প্রস্তুতি প্রতিযোগিতায় খেলার সময় উরুর পেশিতে চোট পেয়েছিলেন জোকোভিচ। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আগে ডানিল মেদভেদেভের বিরুদ্ধে প্রীতি ম্যাচেও পুরো খেলতে পারেননি চোটের জন্য। কিন্তু মূল পর্বে কোনও সমস্যা হচ্ছে না তাঁর। কোর্টে নেমে যে ভাবে তরুণ প্রতিপক্ষদের উড়িয়ে দিচ্ছেন, সেই মেজাজেই জবাব দিয়েছেন নিন্দকদের। জোকোভিচ বলেছেন, কারও কাছে তাঁর প্রমাণ করার কিছু নেই। তিনি বলেছেন, ‘‘যাঁরা আমার চোট নিয়ে সন্দেহ করছেন, তাঁদের সন্দেহ করতে দিন। শুধু আমার চোট নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। অন্য খেলোয়াড়রা চোট পেলে তাদেরও এমন ঘটনার শিকার হয়। এখন আমাকে করা হচ্ছে। ব্যাপারটা বেশ মজার। যদিও কাউকে কিছু প্রমাণ করার নেই আমার।’’

কিছুটা উপেক্ষার সুরে সার্বিয়ার টেনিস খেলোয়াড় বলেছেন, ‘‘কে কী ভাবছে বা বলছে, সে সব নিয়ে আমি একটুও চিন্তিত নই।’’ জোকোভিচ জানিয়েছেন, যা চলছে তাতে তিনি মজাই পাচ্ছেন। বলেছেন, ‘‘যে ভাবে বর্ণনা করা হচ্ছে, সেটা অন্য খেলোয়াড়দের তুলনায় কিছুটা আলাদা। এই ধরনের ঘটনায় আমি অভ্যস্ত। এ সব আমাকে অতিরিক্ত শক্তি দেয়। আরও ভাল খেলার জন্য অনুপ্রাণিত করে। তাই যাঁরা প্রশ্ন তুলছেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানাতে চাই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.