Advertisement
৩১ জানুয়ারি ২০২৩
BCCI

আবার কোপ ভারতীয় ক্রিকেটে, দ্রাবিড়ের এক গুরুত্বপূর্ণ সহকারীকে ছেঁটে ফেলল ভারতীয় বোর্ড

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে রোহিতদের লজ্জাজনক বিদায়ের পর কঠোর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। আগেই বরখাস্ত করা হয়েছে জাতীয় নির্বাচকদের। এ বার ছাঁটাই করা হল ভারতীয় দলের এক সাপোর্ট স্টাফকে।

ভারতীয় দলের সঙ্গে আর রাখা হচ্ছে না দ্রাবিড়ের এক গুরুত্বপূর্ণ সহকারীকে।

ভারতীয় দলের সঙ্গে আর রাখা হচ্ছে না দ্রাবিড়ের এক গুরুত্বপূর্ণ সহকারীকে। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০২২ ১৩:৩১
Share: Save:

একের পর এক কঠোর সিদ্ধান্ত নিচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে রোহিত শর্মাদের লজ্জার হারের পর বরখাস্ত করা হয়েছিল জাতীয় নির্বাচক কমিটিকে। এ বার কোপ পড়ল ভারতীয় দলের এক সাপোর্ট স্টাফের উপর। মনোবিদ প্যাডি আপটনকে আর না রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Advertisement

কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের অনুরোধে গত জুলাই মাসে আপটনকে নিয়োগ করেছিল ভারতীয় বোর্ড। ৫৩ বছরের মেন্টাল কন্ডিশনিং কোচকে আর রাখা হবে না। বাংলাদেশ সফরেও তাঁকে পাঠানো হচ্ছে না ভারতীয় দলের সঙ্গে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ় সফরের সময় রোহিতদের দলে যোগ দেন আপটন। তাঁর সঙ্গে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তি করা হয়েছিল। তাঁর সঙ্গে নতুন করে আর চুক্তি না করার কথা জানানো হয়েছে। আপটনের কাজে খুশি নন ভারতীয় বোর্ড কর্তারা। তা ছাড়া সামনে কোনও বড় প্রতিযোগিতা নেই।

২০১১ সালে ভারতের এক দিনের বিশ্বকাপ জয়ের পিছনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান ছিল আপটনের। ২০০৯ সালে ভারতের প্রথম বার আইসিসি টেস্ট ক্রমতালিকায় শীর্ষে উঠে আসার ক্ষেত্রেও তাঁর অবদান ছিল। সেই সাফল্যের পর দক্ষিণ আফ্রিকা তাঁর সঙ্গে চুক্তি করে। দক্ষিণ আফ্রিকা দলের মেন্টাল কন্ডিশনিং কোচ হিসাবে ২০১২ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত কাজ করেছেন আপটন। সে সময় তিন ধরনের ক্রিকেটেই দক্ষিণ আফ্রিকা আইসিসি ক্রমতালিকার শীর্ষে উঠে আসে। পরে আইপিএল-সহ বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজ়ি লিগ অন্তত ১২টি দলের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। ক্রিকেট ছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকায় রাগবি দলের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে হারের পরই কঠোর হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা। সব রকম সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার পরেও রোহিতদের লজ্জাজনক বিদায়ে ক্ষুব্ধ হন তাঁরা। একাধিক রদবদলের ইঙ্গিত দেওয়া হয়। প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন জাতীয় নির্বাচক কমিটিকে বরখাস্ত করা হয়। দলের ব্যর্থতা নিয়ে কোচ দ্রাবিড় এবং অধিনায়ক রোহিতের কাছে রিপোর্ট তলব করে বোর্ড। কথা বলা হয় প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গেও। দলের একাধিক ক্রিকেটারের পারফরম্যান্স খতিয়ে দেখার কথা বলা হয়।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.