Advertisement
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
ECB

হ্যারি কেনদের রাঁধুনি নিয়ে টেস্ট খেলতে যাচ্ছেন স্টোকসরা, কেন এই সিদ্ধান্ত ইংল্যান্ডের

রাঁধুনি হিসাবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের সঙ্গে পাকিস্তান সফরে যাবেন ওমর মোজ়াইন। ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে হ্যারি কেনদের খাবারের দেখভালের দায়িত্ব ছিল মোজ়াইনের উপর।

প্রথম বার দলের সঙ্গে রাঁধুনি নিয়ে টেস্ট সিরিজ় খেলতে যাবে ইংল্যান্ড।

প্রথম বার দলের সঙ্গে রাঁধুনি নিয়ে টেস্ট সিরিজ় খেলতে যাবে ইংল্যান্ড। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০২২ ১৪:৪৬
Share: Save:

তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ় খেলতে চলতি মাসের শেষে পাকিস্তান সফরে যাবে ইংল্যান্ড। এই সফরের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করল ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। বেন স্টোকসের দলের সঙ্গে পাঠানো হবে বিশেষ এক জনকে। যিনি ক্রিকেটারের খাবারের বিষয়টি তদারকি করবেন।

প্রথম বার বিদেশ সফরে রাঁধুনি নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিল ইংল্যান্ড। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে সাত ম্যাচের সিরিজ় খেলতে পাকিস্তান সফরে গিয়েছিলেন জস বাটলার, মইন আলিরা। তখন তাঁরা পাকিস্তানের হোটেলের খাবারই খেয়েছিলেন। কিন্তু টেস্ট সিরিজ়ে পাকিস্তানের রাঁধুনীদের উপর ভরসা রাখছেন না ইসিবি কর্তারা। স্টোকসদের খাওয়াদাওয়ার যাতে সমস্যা না হয়, সে জন্য দলের সঙ্গে রাঁধুনি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা।

রাঁধুনি হিসাবে ইংল্যান্ড দলের সঙ্গে পাকিস্তান সফরে যাবেন ওমর মোজ়াইন। ক্রীড়াবিদদের খাবার তৈরি করতে তিনি বিশেষ দক্ষ। আগে ইংল্যান্ডের ফুটবল দলের সঙ্গেও কাজ করেছেন মোজ়াইন। ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপেও হ্যারি কেনদের খাবারের দেখভালের দায়িত্ব ছিল মোজ়াইনের উপর।

কেন এমন সিদ্ধান্ত? ইসিবি সূত্রে খবর, পাকিস্তানে টি-টোয়েন্টি সিরিজ় খেলতে গিয়ে ইংল্যান্ডের একাধিক ক্রিকেটার অসুস্থ হয়ে পড়েন। হজমের সমস্যা হয় তাঁদের। কয়েক জনের পেটখারাপও করেছিল। লাহৌর এবং করাচির হোটেলের খাবারের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন সেই সিরিজ়ে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেওয়া মইন আলি। পূর্ব অভিজ্ঞতার জন্য টেস্ট সিরিজ়ে আর ঝুঁকি নিতে চাইছে না ইংল্যান্ড। তাই দলের সঙ্গে রাঁধুনি নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পাকিস্তানের হোটেলের রাঁধুনিরা ইংল্যান্ড দলের পছন্দ মতো খাবার তৈরি করে দিতে পারেননি। তাঁরা তুলনায় কম তেল-মশলা দিয়ে রান্না করার চেষ্টা করলেও, তা ইংল্যান্ডের ক্রিকেটারদের জন্য ছিল বেশি। এ ধরনের মশলাদার খাবার খেতে অভ্যস্ত নন স্টোকসরা। অতিথি আপ্যায়নের জন্য পাকিস্তানের বেশ কিছু মশলাদার জনপ্রিয় খাবারেরও ব্যবস্থা করা হয়েছিল। সে সবও সহ্য হয়নি ইংরেজর ক্রিকেটারদের।

পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ডের তিনটি টেস্ট শুরু হবে ডিসেম্বরের ১, ৯ এবং ১৭ তারিখ থেকে। ম্যাচগুলি হবে যথাক্রমে রাওয়ালপিণ্ডি, মুলতান এবং করাচিতে। উল্লেখ্য, ১৭ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট সিরিজ় খেলবে ইংল্যান্ড।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE