Advertisement
২৩ জুলাই ২০২৪
Pakistan Cricket

ইংরেজ অধিনায়কের সঙ্গে হাতই মেলালেন না পাক ক্রিকেটার, ক্যাচ বিতর্ক থামছে না ম্যাচ শেষেও

২২ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে সিরিজ় জিতল ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় ম্যাচ শেষে বেন স্টোকস হাত মেলাতে গিয়েছিলেন মহম্মদ আলির সঙ্গে। কিন্তু হাতই মেলালেন না পাক ক্রিকেটার।

বেন স্টোকসের সঙ্গে হাত মেলালেন না মহম্মদ আলি।

বেন স্টোকসের সঙ্গে হাত মেলালেন না মহম্মদ আলি। ছবি: টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৩ ডিসেম্বর ২০২২ ১২:৩৭
Share: Save:

ক্রিকেট মাঠে লড়াই শেষে হাত মিলিয়ে নেওয়ার দৃশ্যই দেখা যায়। যতই কথা কাটাকাটি বা মনোমালিন্য হোক, ম্যাচ শেষে দুই দলের ক্রিকেটাররা একে অপরের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নেন। মাঠের লড়াই মাঠেই রেখে আসেন ক্রিকেটাররা। কিন্তু পাকিস্তান বনাম ইংল্যান্ডের ম্যাচে যদিও দেখা গেল অন্য দৃশ্য। বেন স্টোকসের সঙ্গে হাত মেলাতে অস্বীকার করলেন পাকিস্তানের মহম্মদ আলি।

সোমবার দ্বিতীয় টেস্ট জিতে নেয় ইংল্যান্ড। সেই ম্যাচ শেষে আলির দিকে হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন স্টোকস। কিন্তু হাত মেলাননি আলি। দেখা যায়, তিনি কিছু বলছেন স্টোকসকে। পিছিয়ে আসেন স্টোকস। ফিরে যান সতীর্থদের কাছে। কী কারণে আলি হাত মেলাননি তা স্পষ্ট নয়। কিন্তু পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ড ম্যাচে বিতর্ক শুরু হয়েছিল একটি ক্যাচ ঘিরে। অলি পোপের নেওয়া সেই ক্যাচই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু আদৌ ক্যাচটা ধরেছিলেন পোপ, না কি মাটিতে ছুঁয়ে গিয়েছিল বল? বাবর আজ়ম মনে করছেন আউট ছিলেন না সাউদ শাকিল।

কী ঘটেছিল?

পাকিস্তানের সামনে শেষ ইনিংসে ৩৫৫ রান তোলার লক্ষ্য রেখেছিল ইংল্যান্ড। একটা সময় মনে হচ্ছিল পাকিস্তান সেই রান তুলে ফেলতে পারবে। কিন্তু শাকিল আউট হতে সেই লক্ষ্যে ধাক্কা খায় পাকিস্তান। মধ্যাহ্নভোজের আগেই আউট হন শাকিল। তিনি এবং মহম্মদ নাওয়াজ় ৮০ রানের একটি জুটি গড়েন। ৪৫ রান করে নাওয়াজ় আউট হলেও ক্রিজে ছিলেন শাকিল। ৯৪ রানের মাথায় ব্যাট করছিলেন তিনি। সেই সময় মার্ক উডের বলে ক্যাচ দেন শাকিল। উইকেটরক্ষক পোপ সেই ক্যাচ ধরেন। কিন্তু বল মাটি ছুঁয়েছিল বলে মনে করছেন অনেকে।

পোপ নিজেও বুঝতে পারছিলেন না, ক্যাচটি হয়েছে কি না। মাঠের আম্পায়াররা তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য নেন। তাঁর মনে হয় যে, ক্যাচ নেওয়ার সময় পোপের গ্লাভস মাটিতে লেগেছিল আর বলটি গ্লাভসের মধ্যে ছিল। তাই তিনি আউটের সিদ্ধান্তই জানান। যদিও রিপ্লেতে মনে হয়েছিল যে, বল মাটি ছুঁয়েছে। ম্যাচ শেষে বাবর বলেন, “পেশাদার ক্রিকেটার হিসাবে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত মেনে নিতেই হবে। কিন্তু আমাদের মনে হয়েছিল বল মাটিতে লেগেছিল।”

প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে ২৮১ রান তুলেছিল ইংল্যান্ড। প্রথম দিনেই ১০ উইকেট হারান বেন স্টোকসরা। পাকিস্তানের প্রথম ইনিংস শেষ হয়ে যায় ২০২ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড তোলে ২৭৫ রান। পাকিস্তানের সামনে ৩৫৫ রানের লক্ষ্য রাখে ইংল্যান্ড। সেই রান তাড়া করতে নেমে পাকিস্তান টেস্টের শেষ দিনে থেমে যায় ৩২৮ রানে। ২৬ রানে হেরে যান বাবররা। ২২ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে সিরিজ় জিতল ইংল্যান্ড। শেষ টেস্ট শুরু ১৭ ডিসেম্বর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE