×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

Sandpaper Gate: নতুন করে বল বিকৃতি কাণ্ডের তদন্ত শুরু হওয়ায় ঠকঠক করে কাঁপছে অস্ট্রেলিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৬ মে ২০২১ ২২:৫৫
ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট।

ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট।
ফাইল ছবি

ক্যামেরন ব্যানক্রফ্টের একটা সাক্ষাৎকার থেকেই ফের মাথাচাড়া দিয়েছে বল বিকৃতি কাণ্ড। ২০১৮-র সেই কালো অধ্যায় ফিরে এসেছে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে। সে দেশের বোর্ড ইতিমধ্যেই ফের তদন্ত শুরু করেছে। আর তাতেই ওই টেস্টের সঙ্গে জড়িত থাকা ক্রিকেটার এবং কোচেরা ভয় পেতে শুরু করেছেন।

স্টিভ স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নারকে এক বছরের এবং ব্যানক্রফ্টকে ৯ মাসের নির্বাসন দেওয়ার পরে থেমে গিয়েছিল তদন্ত। কিন্তু ব্যানক্রফ্ট নতুন করে বলেছেন, ঘটনার ব্যাপারে বোলাররা জানতেন। ফলে প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, জশ হ্যাজেলউডদের ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

সেই অস্ট্রেলিয়া দলের বোলিং কোচ ছিলেন ডেভিড সেকার। এক সংবাদপত্রে তিনি বলেছেন, “সেই সময় আমাদের অনেক কাজ ভুল হয়েছিল। যে যাকে পারছিল দোষারোপ করছিল। অনেককে দায়ী করা যেত। আমি থাকতে পারতাম সেই তালিকায়। অন্য কেউ থাকতে পারত। এই দোষারোপের খেলা থামানো যেতে পারত, কিন্তু থামানো হয়নি, যা দুর্ভাগ্যজনক। ক্যামেরন ভাল ছেলে। ও নিজের দোষ ঝেড়ে ফেলার চেষ্টা করছে।”

Advertisement

সেকার মনে করছেন, এই ঘটনা এখনই থামবে না। নতুন করে অনেককে এবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তাঁর কথায়, “একবার যখন ব্যাপারটা উঠল, তখন ফের একে অপরের দিকে আঙুল তোলা চলতেই থাকবে। আমরা বিরাট ভুল করেছি সেটা নিয়ে সন্দেহ নেই। শুধু জানতে চাই, এ বার কাকে দোষী খুঁজে বের করা হয়। এটা হল অনেকটা সেই আন্ডারআর্ম বোলিংয়ের ঘটনার মতো। কখনও এ জিনিস থামবে না।”

Advertisement