Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
ISL 2023-24

শনি ম্যাচে যুবভারতীতে থাকছে বিশেষ মেট্রো, তবে ধরতে গেলে ছুটতে হবে পেত্রাতোসের গতিতে!

আইএসএলের ম্যাচ দেখে যুবভারতী থেকে বাড়ি ফেরার জন্যে মেট্রো কর্তৃপক্ষের কাছে বাড়তি মেট্রোর আবেদন করেছিল মোহনবাগান। মেট্রো ব্যবস্থা করলেও সময় নিয়ে তৈরি হয়েছে ক্ষোভ।

football

সল্টলেকের মেট্রো। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৫:৫০
Share: Save:

আইএসএলের ম্যাচ শেষ হবে রাত ১০টায়। যুবভারতী থেকে সমর্থকদের বাড়ি ফিরতে সমস্যা হতে পারে। সেই কারণে রাত ১০টার পর বাড়তি মেট্রো চালানোর আবেদন করেছিলেন মোহনবাগান সুপার জায়ান্ট কর্তৃপক্ষ। সেই আবেদনে সাড়া দিল মেট্রো রেল। শনিবার ম্যাচ শেষ হওয়ার পর দু’টি মেট্রো চালানো হবে। কিন্তু যে সময়ে বাড়তি দু’টি ট্রেন চালানো হবে, তাতে একেবারেই খুশি হতে পারছেন না সমর্থকেরা। তাঁদের দাবি, ম্যাচ শেষ হওয়ার পর ওই মেট্রো সময়ে ধরতে পারা প্রায় অসম্ভব হবে। যুবভারতী থেকে বেরিয়ে ছুটতে হবে পেত্রাতোসের গতিতে।

মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, সমর্থকদের কথা ভেবে শনিবার রাত ১০টা এবং ১০.১০ মিনিটে দু’টি বাড়তি মেট্রো চালানো হবে। এটি শুধুমাত্র শনিবারের জন্যেই। এমনিতে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে শিয়ালদহগামী শেষ মেট্রো থাকে রাত ৯.৪০-এ। এ দিন আরও দু’টি মেট্রো চলবে। কিন্তু যে সময়ে দু’টি ট্রেন রাখা হয়েছে তা সমর্থকেরা ধরবেন কী করে?

যুবভারতীতে রাত ৮টা থেকে খেলা শুরু। বিরতি এবং অতিরিক্ত সময় মিলিয়ে খেলা শেষ হতে প্রায় ১০টার কাছাকাছি হবে। সেই ১০টাতেই একটি মেট্রো রয়েছে। পরের মেট্রো ১০ মিনিট পরে। ফলে পুরো খেলা শেষ হওয়ার পর সমর্থকদের পক্ষে এসে ট্রেন ধরা কঠিন। বিশেষত, যাঁদের আসন পড়বে আমরি হাসপাতালের দিকে, তাঁরা মেট্রো স্টেশন পর্যন্ত প্রায় ১.৫ কিলোমিটার রাস্তা কী ভাবে আসবেন? ‘সল্টলেক স্টেডিয়াম’ মেট্রো স্টেশনটি এমনিতেই স্টেডিয়ামের থেকে বেশ কিছুটা দূরে। ফলে যাঁরা বাইপাস কাদাপাড়া এলাকা দিয়ে স্টেডিয়ামে ঢুকবেন, তাঁদের পক্ষেও ম্যাচ শেষ হওয়ার পরে দৌড়ে এসে মেট্রো ধরা কার্যত অসম্ভব।

মেট্রোর এই সময়সূচি নিয়ে আনন্দবাজার অনলাইনের তরফে প্রশ্ন করা হয়েছিল মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক কৌশিক মিত্রকে। তিনি বলেন, “এখন আর কিছু করার নেই। এই মুহূর্তে সময়ের বদল করা মুশকিল। পরের ম্যাচগুলির ক্ষেত্রে ভাবা হবে। তা ছাড়া, শিয়ালদহে যাঁরা যাবেন সেখানেও ট্রেন ধরার ব্যাপার রয়েছে। সব বিবেচনা করেই সময় রাখা হয়েছে।”

কিন্তু মেট্রোর এই যুক্তিতে খুশি হতে পারছেন না সমর্থকেরা। বারাসতের সবুজ-মেরুন সমর্থক বাবু পাল বলেন, “বাইপাস থেকে বারাসত যাওয়ার প্রচুর বাস রয়েছে। কিন্তু রাত ১০টায় একটাও বাস পাওয়া যাবে না। আমাকে ভরসা করতে হবে ট্রেনের উপরেই। ভেবেছিলাম মেট্রো করে শিয়ালদহে গিয়ে ট্রেন ধরব। কিন্তু মেট্রো যে সময় দিয়েছে, তাতে বেলেঘাটা থেকে কী করে স্টেশনে আসব সেটাই ভাবছি।”

বারুইপুরের মোহনবাগান সমর্থক রমেশ দত্তও একই কথা বলছেন। তাঁর কথায়, “আমার যে গেট পড়েছে তাতে কাদাপাড়া দিয়ে ঢুকলেই হবে। কিন্তু পুরো ম্যাচ শেষ হওয়ার পর মেট্রো স্টেশন পর্যন্ত অত তাড়াতাড়ি আসব কী করে? যাঁরা খেলা দেখতে যান তাঁরা জানেন ভিড় থাকলে স্টেডিয়াম থেকে গেট পর্যন্ত আসতেই মিনিট দশেক লাগে। সেখান থেকে স্টেশন আরও মিনিট দশেক। অন্তত ১০.১৫-এর আগে কিছুতেই স্টেশন পর্যন্ত আসা সম্ভব নয়।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE