Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

French Open 2021: ওসাকার সাহস দেখে মুগ্ধ জোকোভিচ, জাপানির ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তায় বরিস বেকার

ওসাকার এই পদক্ষেপের কারণ জানতে চাওয়া হলে জোকোভিচ অবশ্য অন্য দিকও তুলে ধরেছেন। চিরাচরিত সংবাদমাধ্যম ও নেট মাধ্যমের তুলনা করেছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০২ জুন ২০২১ ১৫:২৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
নেয়োমি ওসাকার পদক্ষেপ নিয়ে এ বার মতামত দিলেন বরিস বেকার ও নোভাক জোকোভিচ।

নেয়োমি ওসাকার পদক্ষেপ নিয়ে এ বার মতামত দিলেন বরিস বেকার ও নোভাক জোকোভিচ।

Popup Close

নেয়োমি ওসাকার পদক্ষেপ নিয়ে এ বার মতামত দিলেন বরিস বেকারনোভাক জোকোভিচ। জোকোভিচ এই জাপানি তারকার সিদ্ধান্তের জন্য তাঁকে সাহসী বললেও তাঁর প্রাক্তন প্রশিক্ষক বরিস বেকার কিন্তু ২৩ বছরের তরুণীর ভবিষ্যৎ নিয়ে বেশ চিন্তিত।

ফরাসি ওপেনের প্রথম রাউন্ড জেতার পর সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন ‘জোকার’। সেখানে তাঁকে ওসাকার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে সার্বিয়ার এই তারকা বলেন, “আমি ওর সিদ্ধান্তকে সমর্থন করি। ওসাকা যে কাজটা করেছে সেটার জন্য সাহস দরকার হয়। গত কয়েক দিন ধরে ও তীব্র মানসিক কষ্টের মধ্যে দিন কাটাচ্ছিল। তাই হয়তো এমন পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে। তবে আমার বিশ্বাস যাবতীয় সমস্যা কাটিয়ে ওসাকা আরও শক্তিশালী হয়ে খুব দ্রুত কোর্টে ফিরে আসবে।”

ওসাকার এই পদক্ষেপের কারণ জানতে চাওয়া হলে জোকোভিচ অবশ্য অন্য একটা দিকও তুলে ধরেছেন। তিনি চিরাচরিত সংবাদমাধ্যম ও নেট মাধ্যমের তুলনা করেছেন। জোকোভিচ বলেন, “অতীতে খেলোয়াড় কিংবা সমাজের পরিচিত মানুষের প্রচার করার জন্য সংবাদমাধ্যম বড় ভূমিকা নিত। তবে গত ১০ বছরের চিত্রটা একেবারে বদলে গিয়েছে। ক্রীড়াবিদ কিংবা সমাজের অন্য জগতের সফল ব্যক্তিদের কোনও বক্তব্য রাখতে হলে টুইটার, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম রয়েছে। সেখানেই সবাই নিজের মতামত জানায়। ভক্ত কিংবা সাংবাদিকদের জন্যও রসদ দিয়ে থাকে। যদিও নেট মাধ্যমের বাড়বাড়ন্ত চিরাচরিত সংবাদমাধ্যম মেনে নিতে পারে না। ওসাকা হয়তো সেই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে। ও সাংবাদিকদের পাত্তা দিয়ে চায়নি বলেই হয়তো আক্রান্ত হয়েছিল।”

Advertisement

যদিও জোকোভিচের প্রাক্তন প্রশিক্ষক বরিস বেকার কিন্তু ২৩ বছরের তরুণীকে নিয়ে চিন্তিত। তিনি বলেন, “গত কয়েক দিন ধরে ওসাকার ব্যাপারটা নিয়ে লেখালেখি চলছে। ম্যাচ হারলে তো সমালোচনা হবেই। একজন ক্রীড়াবিদকে সমালোচনা মাথা পেতে নিতে হবে। না হলে সে এগোবে কীভাবে! ওসাকা ফ্রান্সের প্রচার মাধ্যমকে সামলাতে না পেরে সরে গেল! ভবিষ্যতে ও ব্রিটিশ এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রচার মাধ্যমকে কীভাবে সামলাবে! ওই দুই দেশের সংবাদমাধ্যম আরও বেশি আগ্রাসী মনোভাবের। ওসাকা যদি মনকে শক্ত না করে তাহলে কিন্তু ভবিষ্যৎ নিয়ে আমি চিন্তায় রইলাম।”

সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার ফরাসি ওপেন থেকে বিদায় জানিয়েছিলেন ওসাকা। তাঁর এমন পদক্ষেপের জন্য টেনিস দুনিয়ায় ইতিমধ্যেই আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা, সেরিনা উইলিয়ামস, বিলি জিন কিংয়ের মতো ক্রীড়াবিদরা তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন। আর এ বার এই বিষয়ে মন্তব্য করলেন আরও দুই দিকপাল।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement