Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২৩
Axar Patel

অক্ষরের সামনে হার্দিক, মাঝে এসে মজা করে গেলেন কোহালি, দেখুন ভিডিয়ো

মজার এই সাক্ষাৎকারের শেষে আরও মজার ককটেল যোগ করলেন অধিনায়ক বিরাট কোহালি।

অক্ষরের প্রশংসায় পঞ্চমুখ অধিনায়ক।

অক্ষরের প্রশংসায় পঞ্চমুখ অধিনায়ক। ছবি - টুইটার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৩:০৩
Share: Save:

ঠিক যেন ঘরের মাঠে রাজার মত ফিরে আসা। ৩ বছর জাতীয় দলের বাইরে থাকার পর এ যেন স্বপ্নের প্রত্যাবর্তন। নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে মাত্র ২ দিনে শেষ হয়ে যাওয়া গোলাপি বলের টেস্টে একাই দাপট দেখালেন অক্ষর পটেল। প্রথম ইনিংসে ৩৮ রানে ৬ উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৩২ রানে ৫ উইকেট। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে গোলাপি বল হাতে ৭০ রানে ১১ উইকেট নেওয়ার পর ‘ম্যাচের সেরা’ অক্ষরের সঙ্গে কথা বললেন টিম ইন্ডিয়ার আর এক অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ড্য। মজার এই সাক্ষাৎকারের শেষে আরও মজার ককটেল যোগ করলেন অধিনায়ক বিরাট কোহালি। ২ জনের কথোপকথনের মাঝে ঢুকে হঠাৎ বলে দিলেন, “এ বাপু তারি বোলিং কামাল ছে!”

হার্দিক পাণ্ড্য: ভাই তোমার জন্য তো টেস্ট ক্রিকেট একে বারে জলভাত হয়ে গিয়েছে। তাই না?

অক্ষর পটেল: ভাই চিপকে অভিষেক করার পর থেকে সবাই এটাই জিজ্ঞেস করে চলেছে। সবকিছু যখন ঠিকঠাক চলে, তখন সবই ভাল। কিন্তু কোনও ব্যাটসম্যানকে ভুল করে ‘ফুলটস’ দিয়ে ফেললে আসল চাপ বোঝা যায়। সবকিছুই আত্মবিশ্বাসের ব্যাপার। নিজের বোলিংয়ের প্রতি ভরসা আছে বলেই টেস্ট ক্রিকেটের শুরুটা বেশ ভাল হল।

হার্দিক: একজন বন্ধু ও সতীর্থ হিসেবে তোমার জন্য গর্বিত। আচ্ছা তোমার এই উত্থানের পিছনে কার অবদান সবচেয়ে বেশি?

অক্ষর: প্রায় ৩ বছর জাতীয় দলের বাইরে ছিলাম। তখন শুধু নিজের ক্রিকেটীয় উন্নতি নিয়ে চিন্তা করতাম। ঘরোয়া ক্রিকেট, ভারত-এ ও আইপিএলে ক্রমাগত ভাল ফল করলেও জাতীয় দলে ফিরে আসার সুযোগ আসছিল না। এর মধ্যে যোগ হয়েছিল কিছু মানুষ, যারা ক্রমাগত খোঁচা দিয়ে যেত! তবে সেই কঠিন দিনগুলোতে আমার পরিবার, একাধিক বন্ধু ও তোমার মত বিশেষ বন্ধু সবসময় আমাকে ভরসা দিয়েছিল। তোমরা আমাকে সবসময় সাহস দিয়েছিলে বলেই এত মানুষের সামনে ফের খেলতে পারছি। তাই এই প্রত্যাবর্তনের জন্য তোমাকেও অনেক ধন্যবাদ।

হার্দিক: আমি গর্বিত। কারণ আমার বন্ধুর মধ্যে পরিশ্রম করার ক্ষমতা, ধৈর্য ও সততা রয়েছে। সেই জন্য অক্ষর রাজার মতো ফিরল। ঘরের মাঠে রাজার মত পারফরম্যান্স করেছো। মাঠে নামলেই ‘অক্ষর...অক্ষর...’ চিৎকার হচ্ছিল। কেমন অনুভূতি হচ্ছে?

অক্ষর: এটা আমার দ্বিতীয় টেস্ট হলেও, ঘরের মাঠে প্রথম। এই মাঠে ছোট থেকে খেলে বড় হয়েছি। এমন মাঠে ২ ইনিংসে ৫টি করে উইকেটে নিয়ে অবশ্যই দারুণ লাগছে। পরিবার মাঠে থাকায় আরও ভাল লাগছে। ওদের সামনে নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছি বলে বাড়তি আনন্দ হচ্ছে।

হার্দিক: ভাই দুটো টেস্টে খেলেই কিন্তু তুমি সবার মন জয় করে নিয়েছ। পরের টেস্টেও কিন্তু পাঁচ উইকেট চাই।

অক্ষর: চেষ্টা করব। আগেভাগে তো দাবি করা সম্ভব নয়। তবে চেষ্টার খামতি থাকবে না।

হার্দিক: ঠিক আছে। তা হলে নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়াম থেকে আমরা বিদায় নিচ্ছি। কিন্তু বিদায় নেওয়ার আগে আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন দলের অধিনায়ক। তিনিও কিছু বলবেন...

অক্ষরকে কোহালির ‘বিরাট’ সার্টিফিকেট: এ বাপু তারি বোলিং কামাল ছে!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE