• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করবেট থেকে সুন্দরবন, বাঘের ‘বাড়ি’ দেখুন এই ভিডিয়োয়

Indian Tiger
বিশ্ব বাঘ দিবসে অভিনব উদ্যোগ— ফাইল চিত্র।

সামগ্রিক ভাবে ছবিটা বেশ আশাব্যঞ্জক। কিন্তু তারই মধ্যে মিশে রয়েছে হতাশার কিছু তথ্যও। বিশ্ব বাঘ দিবস (গ্লোবাল টাইগার ডে) উপলক্ষ্যে কেন্দ্রীয় বনমন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর এবং তাঁর দফতরের প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ভারতে বাঘের আবাসভূমি এবং সংখ্যা নিয়ে যে রিপোর্ট পেশ করেছেন, তা দেখে এমনটাই মনে করছেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞেরা।

‘স্ট্যাটাস অফ টাইগারস, কোপ্রিডেটরস অ্যান্ড প্রে’ শীর্ষক ৬৫০ পাতার ওই রিপোর্ট জানাচ্ছে, ২০১৮ সালের সুমারি অনুযায়ী ভারতে বাঘের সংখ্যা ২,৬০৩ থেকে ৩,৩৪৬-এর মধ্যে। আনুমানিক ২,৯৬৭টি বাঘ রয়েছে ভারতীয় বনাঞ্চলে। ২০১৪ সালের সুমারিতে ১,৪১১টি বাঘের অস্তিত্ব জানা গিয়েছিল। সেই হিসেবে এটি বড় সাফল্য। কিন্তু সেই সঙ্গে উঠে এসেছে কিছু হতাশার পরিসংখ্যানও। ঝাড়খণ্ডের পালামু, মিজোরামের ডাম্পার পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের বক্সা ব্যাঘ্রপ্রকল্পকেও কার্যত ‘বাঘশূন্য’ বলে মেনে নেওয়া হয়েছে।

২০১০ সালে রাশিয়ার সেন্ট পিসটবার্গে বিশ্ব বাঘ সম্মেলনে ২৯ জুলাই দিনটিকে ‘গ্লোবাল টাইগার ডে’। পৃথিবীর মোট বুনো বাঘেদের ৭০ শতাংশেরও বেশি রয়েছে ভারতে। প্রতি বছরই এই দিনটিতে দেশজুড়ে সরকারি-বেসরকারি স্তরে নানা অনুষ্ঠান হয়। কিন্তু এবার বাধ সেধেছে করোনা পরিস্থিতি। তবে তারই মধ্যে নজর কেড়েছে কিছু ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। সোশ্যাল মিডিয়ায় আজ ভাইরাল হয়েছে ২ মিনিট ২৭ সেকেন্ডের একটি ভিডিয়ো। ছোট্ট পরিসরে সেখানে তুলে ধরা হয়েছে ভারতীয় বাঘের বসত আর তাদের পড়শিদের কথা!

বিশ্ব বাঘ দিবসে এই অভিনব উদ্যোগ শহরের বন্যপ্রেমী সংগঠন ‘শের’-এর। ভারতের বিভিন্ন ব্যাঘ্রপ্রকল্প এবং সংরক্ষিত বনাঞ্চলে বাঘ বাঁচানোর লড়াইয়ে সামিল বনকর্মীদের উৎসর্গ করা হয়েছে এই ছবিটি। শিরোনাম— ‘‘মানুষের হৃদয়ই বাঘের সেরা বসতি।’’

সংস্থার কর্ণধার তথা রাজ্য বন্যপ্রাণ উপদেষ্টা পর্ষদের সদস্য জয়দীপ কুণ্ডুর কথায়, ‘‘আমাদের যৌথ প্রচেষ্টা বন্যপ্রাণ সংরক্ষণে নতুন দিশা আনতে পারে। সেই সচেতনতা গড়ে তোলার উদ্দেশ্যেই এই প্রয়াস।’’ জানালেন, উপযুক্ত অস্ত্র এবং প্রশিক্ষণ ছাড়াই দুর্গম জঙ্গলে কর্তব্যে অবিচল সেই ‘হৃদয়-রক্ষক’দের কথা তুলে ধরতে চেয়েছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন: মোহনবাগান দিবসে টাইম স্কোয়ারের বিলবোর্ড ঢাকল সবুজ মেরুনে

ভিডিয়োটির আবহসংগীত শমীক চক্রবর্তীর। সম্পাদনা করেছেন হিমালয়ান ফটো সোসাইটির মনন উপাধ্যায়। সৌরভ মণ্ডল, শুভম পালিত, শশীধর ভেমপালার মতো ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফারদের তোলা ফুটেজ রয়েছে ভিডিয়োটিতে। বাঘের পাশাপাশি রয়েছে হিমালয়ের  রেড পান্ডা, সুন্দরবনের হোয়াইট বেলিড সি ইগল, মধ্যভারতের ঢোল (বুনো কুকুর), পশ্চিমঘাট পর্বতের বাসিন্দা বিরল হোয়াইট বেলিড উডপেকারের মতো বুনোদের ছবি।

 

The best habitat for the Tiger is the human heart!

SHER has been taking the opportunity of #GlobalTigerDay to acknowledge our forest field warriors since quite a few years. #SHER has always believed that it’s the forest foot soldiers and the fringe dwelling communities, who are the foremost baton-holders of #TigerConservation. For SHER the specie #Tiger epitomizes India’s natural wealth and protecting their habitat that secures our food and air. The year 2020 is a difficult time where mankind is struggling for its own existence. This year we refrain from our customary felicitation program (Prof. Ratanlal Bhahmachari Memorial Felicitation) both at Kolkata and in the field. Instead we have made this music-video on India’s rich natural diversity which is the Tiger’s habitat. We dedicate this to the people who are safeguarding this with their unrestrained spirit and energy. SHER thanks #ShamikChakravarty for being kind enough to compose the music for the video and #MananUpadhyaya & the #HimalayanPhotoSociety for weaving the frames. Thanks to all our dear friends #SashidharVempala #SouravMondal #NachiketaBajaj #SriroopaBajaj #SoumitaMukherjee #ShubhamPalit #NityanandaChowkidar who obliged us with their priceless video footages that made this communication-for-conservation possible.

Posted by SHER on Tuesday, 28 July 2020

দেশজোড়া বাঘের ডেরা ভিডিয়োতে।

জয়দীপ জানান, প্রতি বছরই বিশ্ব বাঘ দিবসে রাজ্যের বনকর্মী এবং বন্যপ্রাণ রক্ষায় সক্রিয় স্বেচ্ছাসেবীদের সম্মাননা জানান তাঁরা। ২০১৮ সাল থেকে প্রয়াত বিজ্ঞানী রতনলান ব্রহ্মচারীর নামাঙ্কিত পুরস্কারও চালু করেছেন। কিন্তু এ বার বাধ সেধেছে করোনা পরিস্থিতি। তাই নতুন ভাবনায় বাঘ বাঁচানোর যুদ্ধের পদাতিক যোদ্ধাদের এই ভার্চুয়াল সম্মাননা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন