‘শিল্পীরা রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হলে তাঁদের বেশি ট্রোলড হতে হচ্ছে’ 
প্রার্থী হিসেবে নুসরতের নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি ট্রোলড হয়েছেন বলে দলীয় সূত্রে দাবি।
nusrat jahan

নুসরত জাহান

পুরোদস্তুর ভোটযুদ্ধে নামার আগে এলাকার নেতৃত্বের সঙ্গে পরিচিত হলেন বসিরহাটের তৃণমূল প্রার্থী অভিনেত্রী নুসরত জাহান। বৃহস্পতিবার দুপুর একটায় বাবা শাহজাহানকে সঙ্গে নিয়ে মধ্যমগ্রামে উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল কার্যালয়ে পৌঁছন তিনি। তৃণমূল কার্যালয়ে নুসরতকে ‘মা-মাটি-মানুষ’ লেখা দলীয় উত্তরীয় পরিয়ে দেওয়া হয়।

জেলা নেতৃত্বের তরফে এ দিন বসিরহাটের দলীয় নেতৃত্বকে জেলা কার্যালয়ে ডাকা হয়েছিল। উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক দীপেন্দু বিশ্বাস, নুরুল ইসলাম, জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ নারায়ণ গোস্বামী-সহ বসিরহাটের নেতানেত্রী। এ দিন জেলা তৃণমূল সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বসিরহাটের নেতৃত্বের সঙ্গে নুসরতের পরিচয় করিয়ে দেন। সকলকে নিয়ে জ্যোতিপ্রিয় বৈঠক করেন। বৈঠকে প্রচারের রণনীতি ঠিক করা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে খবর। দিন কয়েকের মধ্যেই নুসরত বসিরহাটে গিয়ে প্রচার শুরু করবেন। বৈঠক শেষে নুসরত সাংবাদিক সম্মেলন করেন।

প্রার্থী হিসেবে নুসরতের নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি ট্রোলড হয়েছেন বলে দলীয় সূত্রে দাবি। ওই বিষয়ে নুসরত জানান, ‘‘শিল্পীরা রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হলে তাঁদের বেশি ট্রোলড হতে হচ্ছে।’’

বসিরহাটে ভোটের প্রচার করতে বা সেখানকার মানুষের সঙ্গে কাজ করতে তাঁর যে কোনও অসুবিধা হবে না, এ দিন তা স্পষ্ট ভাবে জানিয়েছেন নুসরত। যা শুনে বসিরহাট থেকে আসা দলীয় নেতা-কর্মীদের চোখেমুখে স্বস্তি দেখা যায়।

আরও পড়ুন: আজ-হারেও সব ‘দোষ’ নেহরুর! মাসুদ নিয়ে বিজেপি-কংগ্রেসের নতুন বিতর্কের চিত্রনাট্য

বসিরহাটের এক নেতার কথায়, ‘‘প্রথম দিনের অভিজ্ঞতা খুবই ইতিবাচক। আশা করছি গতবারের থেকেও এ বার বেশি ভোটে জিতব।’’

দলের তরফে কী নির্দেশ দেওয়া হল নুসরতকে? 

 দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

পোড়খাওয়া নেত্রীর মতো নুসরত বলেন, ‘‘কী ধরনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, এ বিষয়ে আমার কিছু বলার নেই। আমরা নির্দিষ্ট কিছু পরিকল্পনা মেনে উন্নয়নের জন্য কাজ করি। সেভাবেই কাজ করব।’’ রাজনীতির ময়দান সম্পূর্ণ আলাদা জায়গা, কী ভাবে মানিয়ে নেবেন এ প্রশ্নে নুসরত বলেন, ‘‘প্রথম যেদিন অভিনয় জগতে পা দিয়েছিলাম, সেদিনও কোনও অভিজ্ঞতা ছিল না। কাজের মাধ্যমে অভিজ্ঞতা বেড়েছে। এখানেও 

তেমনই হবে।’’ 

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত