• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

৮ দিনে বাতিল ২৫০ ট্রেন, শিয়ালদহে ভোগান্তির ভয়

LOCAL TRAIN
ছবি: সংগৃহীত।

পুনর্নির্মাণের জন্য টালা ব্রিজ বন্ধ। তার উপরে ইছাপুর এবং নৈহাটির মধ্যে স্বয়ংক্রিয় সিগন্যালিং ব্যবস্থার কাজের জন্য আজ, রবিবার বেলা ১২টা থেকে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টা পর্যন্ত শিয়ালদহ-নৈহাটি শাখায় আড়াইশোরও বেশি ট্রেন বাতিল থাকবে। আজ, রবিবার ছুটির দিনে ট্রেন বাতিলের তেমন প্রভাব বোঝা না-গেলেও কাল, সোমবার সপ্তাহের প্রথম কাজের দিন থেকেই শিয়ালদহ মেন লাইনের যাত্রীদের ভোগান্তি বাড়বে। কারণ, টালা ব্রিজ বন্ধ থাকার ফলে বি টি রোড দিয়েও সহজে শ্যামবাজার পৌঁছনো যাচ্ছে না। 

যাত্রীদের প্রশ্ন, টালা ব্রিজ বন্ধ হওয়ায় অনেকেই ট্রেনের উপরে পুরোপুরি নির্ভরশীল হয়ে পড়েছেন। এ বার এত ট্রেন বাতিল করা হলে বিকল্প পরিবহণের ব্যবস্থা কী? 

রেল এ নিয়ে কিছুই বলেনি। জানিয়েছে, সিগন্যাল আধুনিকীকরণের কাজ কিছুটা এগোলে ১৪ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি ৮টি লোকাল ট্রেনকে নৈহাটির বদলে কল্যাণী পর্যন্ত চালানো হবে। কিন্তু সোম থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত নিত্যযাত্রীদের কী হবে? এক কর্তা বলেন, নৈহাটি শাখায় দৈনিক অন্তত ১১০ জোড়া ট্রেন চলে। তার মধ্যে কাল, সোমবার থেকে দৈনিক ৪০ জোড়া ট্রেন বাতিল হবে। অর্থাৎ রেল পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ হবে না। 

আরও পড়ুনগণতান্ত্রিক পরিসর কমছে শিবপুরে, উঠছে অভিযোগ

যাত্রীদের বক্তব্য, মেন লাইনে যে বিপুল সংখ্যক যাত্রী রোজ যাতায়াত করেন, তাতে ৪০ জোড়া ট্রেন বাতিল হলে বাদুড়ঝোলা ভিড়ে রীতিমতো প্রাণ হাতে করে ট্রেনে উঠতে হবে। সোদপুর, বেলঘরিয়া, ব্যারাকপুরের বহু যাত্রী অটো বা বাসে চেপে বারাসত, মধ্যমগ্রাম বা বিরাটি স্টেশন দিয়ে বনগাঁ শাখার ট্রেন ধরে দমদম বা শিয়ালদহে পৌঁছনোর কথা ভাবছেন। তাতেও অবশ্য ভোগান্তি কমবে না। 

রেলকর্তারা বলছেন, সিগন্যালিং ব্যবস্থার আধুনিকীকরণের ফলে অদূর ভবিষ্যতে নৈহাটি-ব্যান্ডেল শাখায় ট্রেন চলাচল আরও মসৃণ হবে। রেল জানিয়েছে, আজ, রবিবার ৩ জোড়া করে শিয়ালদহ-নৈহাটি এবং শিয়ালদহ-কল্যাণী সীমান্ত লোকাল বাতিল থাকবে। 

সোমবার থেকে রোজ গড়ে ৪০টিরও বেশি ট্রেন বাতিল থাকতে পারে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত রোজ ১৩ জোড়া শিয়ালদহ-নৈহাটি লোকাল, ৭টি কল্যাণী সীমান্ত লোকাল, ২ জোড়া রানাঘাট লোকাল ছাড়াও রানাঘাট, নৈহাটি, কৃষ্ণনগর-সহ আরও একাধিক লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকছে। ১৪ এবং ১৫ ফেব্রুয়ারি নৈহাটি-বজবজ লোকাল ব্যারাকপুর পর্যন্ত চলবে। রেল জানিয়েছে, ১৬ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টা পর্যন্ত ৬টি ট্রেন বাতিল থাকবে। শিয়ালদহ-বলিয়া, কলকাতা -পটনা এবং গৌড় এক্সপ্রেস ডানকুনি দিয়ে ঘুরপথে চলবে। সেগুলি দক্ষিণেশ্বর এবং ডানকুনিতে থামবে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন