রোজভ্যালি-কাণ্ডে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-এর দফতরে হাজিরা দিলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা নাগাদ তিনি সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে পৌঁছন। ইডি সূত্রে খবর অনুযায়ী প্রায় সাত ঘন্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ পর্ব চলে। 

অভিনেত্রীর বয়ানও রেকর্ড করা হয় বলে ওই সূত্রটি জানিয়েছে। জেরার আগে ঋতুপর্ণা বলেছিলেন, “ওঁদের কিছু জানার আছে। আমি এসেছি। আমাদের সংস্থাকে নোটিস পাঠানো হয়েছিল। আমি এসেছি। এখনই এত কিছু বলা যাচ্ছে না। আগে ওঁদের সঙ্গে দেখা করি, তার পর বিষয়টি নিয়ে বলতে পারব।”

ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, রোজভ্যালি গ্রুপ বেশ কয়েকটি সিনেমা প্রযোজনা করে। সেই সূত্রে সংস্থার কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে যোগাযোগ হয় ঋতুপর্ণার। পরে অভিনেত্রীর সংস্থার সঙ্গে একটি চুক্তি হয় রোজভ্যালি গ্রুপের। সে বিষয়ে জানতে চান কেন্দ্রীয় সংস্থার আধিকারিকেরা। অভিযোগ, অভিনেত্রীর একটি বিদেশ সফরের সঙ্গে রোজভ্যালি সংস্থার আর্থিক লেনদেন হয়েছে। বিষয়টি আদৌ ঠিক কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদি তিনি রোজভ্যালির টাকায় বিদেশ সফরে গিয়ে থাকেন, তা হলে কেন গিয়েছিলেন সে বিষয়েও ইডি অফিসাররা জানতে চেয়েছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে। 

আরও পডু়ন: নতুন দিন-ক্ষণ ঘোষণা, সোমবার দুপুরে রওনা হচ্ছে ‘চন্দ্রযান-২’

আরও পড়ুন: ‘এতটাই হ্যান্ডসাম ছিলেন যে, আমরা সব ওঁর গুণমুগ্ধ ছিলাম’

রোজভ্যালি-কাণ্ডে চলতি সপ্তাহেই হাজিরা দেওয়ার কথা অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের। এ মাসে সারদা ও রোজভ্যালি কাণ্ডে আরও ৬ জন হাজিরা দিতে পারেন বলে ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে।