• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সারদা-নারদা এবং বিজেপি নিয়ে কল্যাণের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ অপরূপা 

Kalyan Aparupa
কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ অপরূপা পোদ্দার। —ফাইল চিত্র

কোচবিহারের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। আরও কিছু তৃণমূল নেতার বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা রয়েছে রাজনৈতিক মহলে। তার মধ্যেই তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্য নিয়ে খানিকটা ক্ষোভ প্রকাশ করলেন তৃণমূলেরই সাংসদ অপরূপা পোদ্দার। কল্যাণের বক্তব্য, সিবিআই-এর হাত থেকে বাঁচতে সারদা-নারদায় অভিযুক্তরাই বিজেপিতে যাবেন। ঘটনাচক্রে, অপরূপার নামও নারদায় অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছে। কল্যাণের ওই মন্তব্য নিয়ে আরামবাগের সাংসদ অপরূপার পাল্টা বক্তব্য, ‘‘বিজেপিকে সুযোগ করে দিচ্ছেন কল্যাণ।’’ এর মধ্যেই বিজেপি-র সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় দাবি করেছেন, ‘‘কল্যাণ নিজেও তো বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন।’’

তৃণমূলের নেতাদের অনেকেই বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন বলে লোকসভা ভোটের সময় থেকে দাবি করে আসছে বিজেপি। রাজ্যে বিধানসভা ভোটের পারদ চড়তে সেই দাবি আরও জোরালো করছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বা সায়ন্তন বসুরা। সেই প্রসঙ্গে সম্প্রতি একাধিক সভায় কল্যাণ বলেছেন, সিবিআই-এর হাত থেকে বাঁচতে সারদা-নারদায় অভিযুক্তরাই বিজেপিতে যাবেন। তাঁর বক্তব্য, ‘‘বিজেপির যোগদান মেলায় প্রথম সারিতে রয়েছেন তৃণমূলের সেই সব নেতা, যাঁরা নারদা-সারদা-রোজভ্যালিতে অভিযুক্ত।’’ রবিবার শ্রীরামপুরে তৃণমূলের একটি কর্মিসভায় যোগ দিয়েছিলেন কল্যাণ। তার আগে শনিবার ছিল রিষড়ায় দলীয় কর্মসূচি। দুই সভাতেই কল্যাণের দাবি, ‘‘কেউ কেউ তো দু-তিন বছর আগে কথা দিয়ে রেখেছেন। বলে রেখেছেন, গায়ে হাত দেবেন না। নির্বাচনের আগে আগে চলে আসব।’’

হুগলি জেলায় তৃণমূলের কোর কমিটির চেয়ারম্যান কল্যাণ। ৭ সদস্যের ওই কমিটিতে রয়েছেন অপরূপাও। যিনি নিজে নারদা স্টিং অপারেশনে অভিযুক্ত। কল্যাণের ওই ধরনের মন্তব্য প্রসঙ্গে অপরূপা বলেছেন, ‘‘দলের সিনিয়র নেতা বলছেন নারদা-সারদায় অভিযুক্তরা বিজেপিতে চলে যাবেন। এই ধরনের মন্তব্য করা উচিত নয়।’’ আরামবাগের সাংসদ অপরূপার পাল্টা প্রশ্ন, ‘‘সুপ্রিম কোর্ট কি বলে দিয়েছে এরা অপরাধী? আমি মনে করি, এটা বিজেপিকে সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। কাউকে ব্যাক্তিগত আক্রমণ করা ঠিক নয়।’’ হুগলির সাংসদ লকেট অবশ্য কল্যাণের মন্তব্যকে গুরুত্ব দিতে নারাজ। তিনি বলেন, ‘‘নারদা-সারদার তদন্ত সিবিআই করছে। সেটা আলাদা বিষয়। তৃণমূলের যাঁরা মানুষের জন্য কাজ করেছেন, তাঁরা বিজেপিতে স্বাগত। আর কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় অনেক কথাই বলেন। ওঁকে আমরা সিরিয়াসলি নিই না।’’ 

আরও পড়ুন: কোনও মুসলিমকে ভোটের টিকিট দেব না, ঘোষণা বিজেপি মন্ত্রীর

আরও পড়ুন: খোশমেজাজে খোল বাজালেন শুভেন্দু, নন্দীগ্রামে বোঝালেন হরিনামের মাহাত্ম্য

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন