গলদঘর্ম অবস্থা এবং তীব্র দহন থেকে অবশেষে স্বস্তি মিলল রাজ্যবাসীর। রাজ্যের নানা জেলাতেই বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া এবং বজ্রপাত।

গত কয়েকদিন ধরেই তীব্র দহনে পুড়ছিল দক্ষিণ বঙ্গ। তার উপরে দোসর ছিল আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। রবিবার বেলা ১টা নাগাদ রাজ্যজুড়েই বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি শুরু হওয়ার স্বস্তিতে মানুষ।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, উত্তর দিনাজপুর, মালদহ, দার্জিলিং, হুগলি, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণা, কলকাতায় বৃষ্টিপাত শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যে। কোথাও কোথাও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাত এবং ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইছে।

আরও পড়ুন: রাজস্থান ৫০, হিমাচল প্রদেশ ৪৪.৯, জম্মু ৪৩.৬ ডিগ্রি! পুড়ছে গোটা উত্তর ভারত

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, এ রাজ্যে ৭ জুন বর্ষা ঢোকার কথা। তার আগে এটা প্রাক বর্ষার বৃষ্টি। সপ্তাহ জুড়েই রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাত চলবে। তাপমাত্রাও কিছুটা হলেও কমার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে এতদিন যে অস্বস্তিতে ছিলেন রাজ্যবাসী, তা আর থাকবে না, জানিয়েছে আলিপুর হাওয়া অফিস।

তবে প্রাক বর্ষা শুরু হলেও, কবে এ রাজ্যে বর্ষা ঢুকবে তা এখনও নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না আবহবিদেরা। সবটাই নির্ভর করছে, কেরলে মৌসুমী বায়ু ঢোকার উপরে। তার পরই বোঝা যাবে এ রাজ্যে কবে থেকে বর্ষার আগমন ঘটবে।