Advertisement
১৬ জুলাই ২০২৪
Ear Popping in flights

বিমান আকাশে উড়তেই কানে তালা লেগে যায়, কর্ণকুহরে তুলো গুঁজেও কাজ না হলে কী করবেন?

বিমানের চাকা মাটি ছেড়ে খানিক দূর উড়তে না উড়তেই বিপত্তি! কানের অবস্থা এমন হয় যে, নিজেকে বধির বললেও ভুল হয় না। এমন সমস্যা কি সকলের হয়?

Try these remedies if your ear gets popped during flight journey

কানে লাগা ‘তালা’র চাবি কোথায়? ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০১ মে ২০২৪ ১৯:৫৭
Share: Save:

স্নান করার সময়ে কানে জল ঢুকলে অনেক সময়েই তালা লেগে যায়। কানের ভিতর ভোঁ ভোঁ করতে থাকে। ঠিক একই রকম অবস্থা হয় বিমানে চড়লেও। দিব্যি সব ঠিক ছিল। বিমান মাটি ছেড়ে খানিক দূর উড়তে না উড়তেই বিপত্তি! এমন অবস্থা হয় যে, নিজেকে বধির ভাবলেও মন্দ হয় না। উল্টো দিকে দাঁড়িয়ে থাকা বিমানসেবিকার কথাও শুনতে পাওয়া যায় না। তাঁদের হাত, মুখ নাড়া দেখে ঠাহর করতে হয়। কিন্তু এমন সমস্যা কেন হয়, তা কি জানেন?

যাঁরা ঘন ঘন বিমানে যাতায়াত করেন, এই সমস্যা তাঁদের কাছে নতুন নয়। বিমানের একঘেয়ে আওয়াজ, কান বন্ধ হয়ে যাওয়ার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে অনেকেই কর্ণকুহরে তুলো, ইয়ার প্লাগ গুঁজে রাখেন। এই টোটকায় যে সব সময়ে উপকার হয়, তা নয়। আসলে, মাটি ছেড়ে আকাশে ওড়ার সময়ে বাতাসের চাপে কান বন্ধ হয়ে যায়। নাক-মুখ দিয়ে বাতাস প্রবেশ করে কর্ণকুহরের মধ্যবর্তী অংশ পূর্ণ করে দেয়। বাইরের সঙ্গে দেহের অভ্যন্তরের চাপের সামঞ্জস্য রাখতে সাহায্য করে কানের মধ্যে থাকা বিশেষ একটি টিউব। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় যাকে ‘ইউস্টেশিয়ান টিউব’ বলা হয়। নাক এবং কানের সঙ্গে যুক্ত থাকে এই টিউব। নাক দিয়ে হাওয়া প্রবেশ করে এই টিউবের মধ্যবর্তী অংশ ভরাট করে দেয়। ফলে কানও বন্ধ হয়ে যায়। আকাশে ওই উচ্চতায় থাকার পর আবার বিমান মাটি ছুঁলেও কিন্তু একই রকম সমস্যা হতে পারে।

চিকিৎসকেরা বলছেন, কানে তুলো বা ইয়ারপ্লাগ গোঁজা এই সমস্যার সমাধান হতে পারে না। বদলে মুখে চিউইয়ং গাম রাখা যেতে পারে বা অল্প অল্প করে জল খাওয়া যেতে পারে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Ear flight
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE