Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Accident Death

বনগাঁয় ফের ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু

টাউন মার্কেট এলাকায় কোনও ভাবে তিনি বাইক থেকে পড়ে গেলে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

দুর্ঘটনার পরে ঘটনাস্থলে পড়ে রয়েছে তারকবাবুর একপাটি স্যাণ্ডেল। তারক সিংহ (ইনসেটে)।

দুর্ঘটনার পরে ঘটনাস্থলে পড়ে রয়েছে তারকবাবুর একপাটি স্যাণ্ডেল। তারক সিংহ (ইনসেটে)। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বনগাঁ শেষ আপডেট: ২৫ জুন ২০২৪ ০৭:৪৮
Share: Save:

কন্টেনারবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল বাইক আরোহী এক যুবকের। সোমবার দুপুরে বনগাঁ শহরের টাউন মার্কেট এলাকায় বনগাঁ-চাকদহ সড়কে ওই দুর্ঘটনায় মৃতের নাম তারক সিংহ ( ৪৩)।তাঁর বাড়ি স্থানীয় শক্তিগড়ে। এই দুর্ঘটনার পর ফের একবার শহরে দিনের বেলায় ট্রাক চলাচল নিয়ন্ত্রণের দাবি তুলেছেন শহরবাসী। পুলিশ ওই ট্রাক এবং চালককে আটক করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ট্রাকটি চাকদহের দিকে যাচ্ছিল। বাইকে তারক বনগাঁ শহরের দিকে আসছিলেন। টাউন মার্কেট এলাকায় কোনও ভাবে তিনি বাইক থেকে পড়ে গেলে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। পুলিশ দেহটি বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে ময়না-তদন্তে পাঠায়। দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গত কয়েক বছরে বনগাঁ শহরে ট্রাকের ধাক্কায় হতাহত হওয়ার বেশ কিছু ঘটনা ঘটেছে। শহরবাসী জীবন হাতে নিয়ে পথে বের হন। এমনিতেই সঙ্কীর্ণ রাস্তার কারণে শহরে পথচলা দায়। অটো-টোটো রাস্তা দখল করে দাঁড়িয়ে থাকে। শহর জুড়ে বাড়ছে নিয়ন্ত্রণহীন টোটোর সংখ্যা। তার উপর নিয়ন্ত্রণহীন ভাবে শহরে ২৪ ঘণ্টা ট্রাক চলে বলে অভিযোগ। অথচ, কয়েক বছর আগেও শহরে দিনের বেলায় ট্রাক চলাচল নিয়ন্ত্রিত ছিল। অনেকেরই অভিযোগ, পুলিশ প্রশাসনের নজরদারির অভাবেই সেই নিয়ন্ত্রণ স্থায়ী হয়নি। প্রসঙ্গত, পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে স্থলপথে বাংলাদেশের সঙ্গে পণ্য রফতানির কারণে শ’য়ে শ’য়ে ট্রাক রোজ শহর দিয়ে যাতায়াত করে। শহরবাসীর দাবি, দিনের বেলায় ট্রাক চলাচল বন্ধ করা হোক। পুলিশ জানিয়েছে, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে পদক্ষেপ করা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Bangaon Truck accident
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE