Advertisement
০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Naushad Siddiqui

‘নওশাদভাইকে ছাড়তে হবে’, ভাঙড়ের রাস্তায় সিরিঞ্জ হাতে পুলিশকে হুমকি যুবকের

আইএসএফ বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকির মুক্তির দাবিতে ভাঙড়ের ঘটকপুকুরে রাস্তায় প্ল্যাকার্ড হাতে প্রতিবাদ প্রদর্শন যুবকের। তাঁর হাতে ‘বিষাক্ত ইঞ্জেকশন’ রয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি।

নওশাদের মুক্তির দাবিতে ভাঙড়ের রাস্তায় প্রতিবাদ যুবকের।

নওশাদের মুক্তির দাবিতে ভাঙড়ের রাস্তায় প্রতিবাদ যুবকের। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ভাঙড়  শেষ আপডেট: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩ ১৪:২৭
Share: Save:

এক হাতে প্ল্যাকার্ড। অন্য হাতের মুঠোয় রয়েছে ‘বিষাক্ত ইঞ্জেকশন’-এর সিরিঞ্জ। আইএসএফ (ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট) বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকির মুক্তির দাবিতে বুধবার এ ভাবেই রাস্তায় দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ প্রদর্শন করছেন এক যুবক। রাস্তা থেকে জোর করে তুলে দিলেই ওই ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করবেন বলে পুলিশকে হুমকি দিয়েছেন আব্দুল বসির মিস্ত্রি। ওই ইঞ্জেকশনে বিষ রয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি।

Advertisement

ভাঙড়ের বিধায়ককের মুক্তির দাবিতে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ঘটকপুকুরে ওই যুবকের এ হেন প্রতিবাদ নজর কেড়েছে। যুবকের প্ল্যাকার্ডে লেখা রয়েছে, ‘‘ভাইজানের মুক্তি চাই।’’ গত শনিবার ধর্মতলায় পুলিশ এবং আইএসএফের খণ্ডযুদ্ধে বাধে। পুলিশের উপর হামলা, সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর-সহ একাধিক অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় বিধায়ক নওশাদকে। বিধায়ক-সহ ১৮ জনকে ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে ব্যাঙ্কশাল আদালত। যার জেরে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। নওশাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছে আইএসএফ।

এই আবহে ঘটকপুকুরে প্রতিবাদ প্রদর্শন করছেন ওই যুবক। তাঁর কথায়, ‘‘ভাইজানের মুক্তির দাবিতে দাঁড়িয়ে রয়েছি। হাতে বিষাক্ত ইঞ্জেকশন রয়েছে। আমার নিজের নিরাপত্তার জন্য ইঞ্জেকশন রেখেছি। আমায় জোর করে তুলে দিতে পারে। ওদের (পুলিশ) হাতির মতো শক্তি আছে। বাঘের মতো হিংস্র ওরা।’’ যত ক্ষণ পারবেন, তত ক্ষণ এ ভাবেই দাঁড়িয়ে থাকবেন বলে জানিয়েছেন ওই যুবক।

Advertisement

নওশাদ-সহ নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে বুধবার শিয়ালদহ থেকে ধর্মতলা পর্যন্ত মিছিলের ডাক দিয়েছে আইএসএফ। শনিবারের ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে, সে নিয়ে তৎপর পুলিশ-প্রশাসন। ভাঙড়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। আইএসএফের মিছিলের জেরে কলকাতায় যানজটের আশঙ্কা রয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.