×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

অসতর্ক হলেই সর্বস্ব লুঠ, পালসিটে পরপর ১৮টি চুরির অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০১:১৭
পরপর চুরির অভিযোগ।

পরপর চুরির অভিযোগ।
নিজস্ব চিত্র।

বিন্দুমাত্র অসতর্ক হলেই গৃহস্থের সর্বস্ব লুঠ করে চম্পট দিচ্ছে দুস্কৃতীরা। একটা-দুটো ঘটনা নয়। গত কয়েক দিনে পরপর ১৮টি চুরির অভিযোগ উঠল পূর্ব বর্ধমানের জাতীয় সড়কের কাছে পালসিট এলাকায়। এমন কাণ্ডের বিহিত চাইছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। একের পর এক অভিযোগ পেয়ে নড়েচড়ে বসেছেন পুলিশকর্তারাও।

মঙ্গলবার পালসিটের ওই এলাকায় একটি বাড়ি থেকে দিনেদুপুরে সোনার গয়না চুরির অভিযোগ উঠেছে। ওই এলাকার বাসিন্দা মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় এবং কল্পনা মুখোপাধ্যায় নামে এক দম্পতির অভিযোগ, এ দিন দুপুরে কিছু ক্ষণের জন্য বাড়িতে ছইলেন না। সে সময় পেশায় চিকিৎসক তাঁদের ছেলে দীপঙ্করও বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। অভিযোগ, সেই সুযোগ নিয়ে বাড়িতে হানা দেয় চোর। বাড়ি ফিরে এসে তাঁরা দেখতে পান, ঘর লন্ডভন্ড। আলমারির দরজা খোলা। সেখান থেকে চুরি গিয়েছে পাঁচ ভরির বেশি সোনার গয়না এবং টাকা। অবশ্য পাশেই থাকা ল্যাপটপ, ট্যাব এবং একাধিক মোবাইল ছুঁয়েও দেখেনি দুষ্কৃতীরা।

দীপঙ্কর বলেন, ‘‘বাবা এবং মা কিছু ক্ষণের জন্য বাইরে গিয়েছিলেন। তার মধ্যেই এই কাণ্ড। বিহিত পেতে আমরা যতদূর যেতে হয় যাব।’’ মানবেন্দ্র প্রতিবেশী সঞ্জীব কোনার বলেন, ‘‘বেশ কয়েক বার একই ধরনের ঘটনা ঘটল এলাকায়। কয়েক দিন আগে এলাকার একটি এটিএমে-ও চুরির চেষ্টা হয়েছে। আমরা আতঙ্কে রয়েছি।’’ একই জায়গা থেকে বার বার একই অভিযোগ পেয়ে বিষয়টি হালকা ভাবে নিচ্ছে না পুলিশও। শুরু হয়েছে তদন্ত।

Advertisement
Advertisement