Advertisement
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
FASTag

মধ্যরাত থেকে নতুন নিয়ম, ফাসট্যাগ না থাকলে গুনতে হবে অতিরিক্ত টাকা

জাতীয় সড়কের টোল প্লাজাগুলিতে নতুন বছরের শুরু থেকেই ১০০ শতাংশ গাড়িকে এই ফাসট্যাগ সিস্টেমের সঙ্গে যুক্ত করার চেষ্টা হয়। পরে সময়সীমা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

পালসিট টোল প্লাজা।

পালসিট টোল প্লাজা। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান শেষ আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৮:০৪
Share: Save:

যে সব গাড়িতে ফাসট্যাগ নেই, মঙ্গলবার থেকে তাদের দ্বিগুণ টাকা গুনতে হবে। সোমবার মধ্যরাতের পর থেকে জাতীয় সড়কের টোল প্লাজাগুলিতে এই নিয়ম চালু হয়ে যাচ্ছে। ফাসট্যাগ না থাকলে যা শুল্ক, হিসেবে তার দ্বিগুণ টাকা দিতে হবে। বিষয়টি নিয়েই কয়েক দিন ধরে, এমন কি সোমবারও টোল প্লাজাগুলিতে জোর প্রচার চলছে। সেই ছবি দেখা গেল পূর্ব বর্ধমানের পালসিট টোল প্লাজাতেও।

এই ব্যবস্থায় প্রতিটি গাড়ির জন্য আলাদা আলাদা কোড যুক্ত ফাসট্যাগ স্টিকার বসানো হয়। রেডিয়ো ফ্রিকোয়েন্সি আইডেন্টিফিকেশন ডিভাইসের মাধ্যমে ওই কোড চিনে নেয় টোলপ্লাজায় বসানো যন্ত্র। গাড়ি যখন টোল প্লাজা দিয়ে যায় ওই ফাসট্যাগের সঙ্গে যুক্ত থাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে সয়ংক্রিয়ভাবে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা কাটা যায়। কোনও কারণে ফাসট্যাগ অ্যাকাউন্টে টাকা ফুরিয়ে গেলে টোল প্লাজায় রাখা পয়েন্ট অব সেলিং মেশিন থেকে তা রিচার্জ করানো যায়।

জাতীয় সড়কের টোল প্লাজাগুলিতে নতুন বছরের শুরু থেকেই ১০০ শতাংশ গাড়িকে এই ফাসট্যাগ সিস্টেমের সঙ্গে যুক্ত করার চেষ্টা হয়। কিন্তু সময়ের মধ্যে সেই লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছতে না পারায় সময়সীমা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এ বার মঙ্গলবার থেকে নতুন নিয়ম চালু হয়ে যাচ্ছে।

পালসিট টোল প্লাজার এক কর্মী বুবুন ঘাঁটির দাবি, জোর কদমে ফাসট্যাগের প্রচার চলছে। জাতীয় সড়কে যাতায়াতকারী সব গাড়িতে এই ব্যবস্থা চালু হয়ে গেলে নগদে লেনদেন বন্ধ হয়ে যাবে। সেই সঙ্গে টোলপ্লাজাগুলিতে যানজটও কমে যাবে। মোটের উপর এখনও পর্যন্ত ৭০ শতাংশ গাড়িতে ফাসট্যাগ রয়েছে। বাকি ৩০ শতাংশ গাড়িতেও যাতে ফাসট্যাগ লাগিয়ে নেন গাড়ির মালিকরা, তার জন্য প্রচার হচ্ছে। কিন্তু এর বাইরে থাকা গাড়িগুলিকে জাতীয় সড়কে টোলপ্লাজায় দ্বিগুণ টাকা দিতে হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE