Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

কোভিড টিকা নিয়ে রাজনীতি করছে তৃণমূল, অভিযোগ মেমারির সিপিএম নেতৃত্বের

নিজস্ব সংবাদদাতা
মেমারি ২৯ মে ২০২১ ২৩:৫৮
মেমারির সিপিএম নেতা সনৎ বন্দ্যোপাধ্যায়

মেমারির সিপিএম নেতা সনৎ বন্দ্যোপাধ্যায়
—নিজস্ব চিত্র।

কোভিড টিকা নিয়ে তৃণমূল রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করল সিপিএম। শনিবার এই অভিযোগে সোচ্চার হলেন পূর্ব বর্ধমানের মেমারির সিপিএম নেতৃত্ব। এ বিষয়ে শনিবার মেমারি ১ নম্বর ব্লকের স্বাস্থ্য আধিকারিকের দফতরে লিখিত অভিযোগ জানান তাঁরা।

মেমারির সিপিএম নেতা সনৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, “তৃণমূলের ওয়ার্ড কার্যালয়ে আধার কার্ডের নথির প্রতিলিপি জমা না করলে কোভিড টিকার কুপন মিলবে না বলে প্রচার করছে শাসকদল। শুক্রবার বিকেলে তৃণমূলের তরফে বিভিন্ন ওয়ার্ডে এ রকম প্রচারও করা হয়েছে। প্রচারে বলা হচ্ছে, টিকা নিতে ইচ্ছুক ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সিরা যেন আধার কার্ডের নথি নিয়ে তৃণমূলের ওয়ার্ড অফিসে এসে দেখা করেন। তাঁদের নাম টিকার জন্যে নথিভুক্ত করা হবে।”

জেলা সিপিএমের অভিযোগ, ওই প্রচারের পর ১০ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা অনেকে অনিচ্ছুক থাকলেও সেখানকার ওয়ার্ড অফিসে গিয়ে তৃণমূলের লোকেদের হাতে আধারের নথি দিয়ে এসেছেন। ফোন করে কুপনের জন্যে তাঁদের ডাকা হবে বলে ওয়ার্ড অফিস থেকে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। এলাকার এক সিপিএম নেতা প্রশান্ত কুমার বলেন, “কোভিড টিকা পাওয়ার জন্য এ ভাবে আধার কার্ডের নথির প্রতিলিপি নেওয়াটা অন্যায়। তাই স্বাস্থ্য দফতরকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। যাতে সরকারি উদ্যোগে নিরপেক্ষ ভাবে প্রচার করা হয়। সেই সঙ্গে নিরপেক্ষতা বজায় রেখে টিকাদান কর্মসূচি করার কথাও বলা হয়েছে।”

Advertisement

তবে সিপিএমের এ অভিযোগ নিয়ে ক্ষুব্ধ মেমারির তৃণমূল নেতৃত্ব। মেমারি পুরসভার উপ-পুরপ্রশাসক সুপ্রিয় সামন্ত বলেন, “সাধারণের সুবিধার জন্যই ওয়ার্ড অফিস থেকে আধারের নথি জমা নেওয়া হচ্ছে। সে সব তথ্য একত্রে পুরসভায় জমা করে সেখানে নথি লিপিবদ্ধ করার পরই সংশ্লিষ্ট উপভোক্তাকে টিকা নেওয়ার তারিখ ও সময় জানানোর বন্দোবস্ত করা হয়েছে। তাঁরা মেমারি শহরের ‘পথসাথী’তে গিয়ে টিকা নিয়েও আসছেন।” সুপ্রিয়র অভিযোগ, “বিধানসভা ভোটে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবার পর এখন সিপিএম নেতারা নানা মিথ্যা অভিযোগ তুলে তাঁদের অস্তিত্ব জানান দিতে চাইছেন।” মহকুমাশাসক (বর্ধমান দক্ষিণ) শুভময় ভট্টাচার্য বলেন, “টিকা নিয়ে মেমারি পুরসভায় যে অভিযোগ উঠছে, তা খোঁজ নিয়ে দেখা হবে।”

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement