×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

নাগরিক-প্রশ্ন খোলসা করুক কেন্দ্র, দাবি মঞ্চের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৯ ডিসেম্বর ২০২০ ০৪:৫৪
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ শহরে পা রাখার ঠিক আগে বাংলায় জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) চালু করা এবং নাগরিকত্বের প্রশ্নে কেন্দ্রীয় সরকারের স্পষ্ট অবস্থান জানতে চাইলেন এনআরসি-বিরোধী আন্দোলনকারীরা। তাঁদের অভিযোগ, বিজেপি নেতারা নানা রকম মন্তব্য করে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি করছেন। শাহ বরং এই বিষয়ে স্পষ্ট অবস্থান ব্যাখ্যা করুন। আর তিনি যদি বাংলায় এনআরসি চালু করার কথা বলেন, তা হলে তা রুখতে প্রবল প্রতিবাদের হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

এনআরসি-বিরোধী যুক্ত মঞ্চের তরফে শুক্রবার প্রসেনজিৎ বসু, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়েরা বলেন, বিধানসভা ভোটের আগে মতুয়া-মন পাওয়ার জন্য কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের মতো বিজেপি নেতারা বলছেন তাঁদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। অথচ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) অনুযায়ী, নাগরিত্বের জন্য ‘তথ্যপ্রমাণ-সহ’ আবেদন করতে হবে। সেই আইনের উপরে বিধি প্রণয়ন এখনও হয়নি। বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারাও এখানে এসে বলছেন, শীঘ্রই বিধি তৈরি হবে এবং নাগরিকত্বও দেওয়া হবে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, দেশে মোট দু’কোটি এবং এ রাজ্যে এক কোটি ‘অনুপ্রবেশকারী’ আছেন। এই বিষয়েও সরকারি বক্তব্য জানতে চেয়েছেন প্রসেনজিতেরা।

কলকাতা প্রেস ক্লাবে এ দিন প্রসেনজিৎ বলেন, ‘‘এনআরসি-র বিরুদ্ধে গত বছর প্রবল গণ-প্রতিবাদ হয়েছিল। করোনার জন্য তা স্থগিত হয়েছিল। এখন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্পষ্ট অবস্থান জানালে মানুষও তৈরি হবেন।’’ ফরওয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক আলি ইমরান রাম্জ (ভিক্টর) ভিডিয়ো-কলে বলেন, ‘‘বিধানসভা ভোটের আগে নানা রকম মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে সাম্প্রদায়িক বিভাজন তৈরি করাই বিজেপির উদ্দেশ্য।’’

Advertisement
Advertisement