Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Murder: পারিবারিক অশান্তি চরমে, উত্তরপাড়ায় বৃদ্ধের মাথায় বাঁশ দিয়ে মেরে খুন করল মেয়ে

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বাবা এবং মেয়ের মধ্যে প্রায়শই ঝগড়া হত। শনিবারও তাঁদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
উত্তরপাড়া ১৩ নভেম্বর ২০২১ ১৫:৩৩
গ্রাফিক—সনৎ সিংহ।

গ্রাফিক—সনৎ সিংহ।

মাথা থেঁতলে বাবাকে খুন করার অভিযোগ উঠল মেয়ের বিরুদ্ধে। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে হুগলি জেলার উত্তরপাড়ার ভদ্রকালী এলাকায়। মৃতের নাম কালীপদ দাস (৬৫)। বাবাকে খুন অভিযুক্ত মেয়ের নাম কেয়া দাস (৪০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত কেয়া বিবাহবিচ্ছিন্না। ছেলেকে নিয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে উত্তরপাড়াতেই থাকতেন। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বাবা এবং মেয়ের মধ্যে প্রায়শই ঝগড়া হত। শনিবারও তাঁদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। তার পর স্নান করতে ঢোকার সময় ভারী কিছু দিয়ে আঘাত করে কালীপদের মাথা কেয়া থেঁতলে দেয় বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তারা গিয়ে দেখে, বাথরুমে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে কালীপদের দেহ।

Advertisement


দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। কেয়াকেও আটক করেছে উত্তরপাড়া থানার পুলিশ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন উত্তরপাড়ার পুরপ্রশাসক দিলীপ যাদব। তিনি বলেছেন, ‘‘যতটা জানতে পেরেছি তাতে কেউ বিষয়টি বুঝতে পারছেন না। এটা দুঃখজনক ঘটনা। আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অন্য কোনও কারণ আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

যদিও বাবাকে খুনের অভিযোগের ব্যাপারে অভিযুক্ত কেয়া বলেছেন, ‘‘বাবা অত্যাচার করত আমাদের উপরে। আমাদের বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিচ্ছিল। ছেলেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। তার পর আমার মাথা গরম হয়ে গিয়েছিল। আমাকে বাঁশ নিয়ে বাবা তেড়ে এসেছিল। আমি বাঁশ কেড়ে নিয়ে বাবাকে বেশ কয়েক মার মেরেছি।’’

আরও পড়ুন

Advertisement