Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

বাংলা ভাগের দাবি আরএসএস-এর পরিকল্পনার অংশ, রুখতে হবে অপচেষ্টা: অধীর

নিজস্ব সংবাদদাতা
বহরমপুর ২২ জুন ২০২১ ১৭:২৩
অধীর চৌধুরী

অধীর চৌধুরী
নিজস্ব চিত্র।

বিজেপি নেতাদের বাংলা ভাগ করার দাবি আসলে আরএসএস-র পরিকল্পনার অংশ। মঙ্গলবার এ কথা বললেন বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘‘আরএসএস-এর নীতি মেনেই পরিকল্পিতভাবে বিজেপি-র নেতারা বাংলা ভাগ করার দাবি তুলছেন।’’ তাঁর আরও দাবি, পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতা দখল করতে না পেরে মুসলমান প্রধান অঞ্চলগুলোকে আলাদা করার ষড়যন্ত্র করছে বিজেপি। অধীরের আশঙ্কা, বাংলা ভাগ করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার সংবিধানের ৩ নম্বর অনুচ্ছেদ প্রয়োগ করতে পারে।

সোমবার বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ পৃথক জঙ্গলমহল রাজ্য গঠনের পক্ষে সওয়াল করেন। তার কয়েক দিন আগেই আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদ জন বার্লা আলাদা উত্তরবঙ্গ রাজ্য গঠনের দাবি করেছিলেন। এই মন্তব্য সামনে আসতেই রাজ্য জুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে। দুই সাংসদের এই মন্তব্যের জেরে অস্বস্তি বেড়েছে রাজ্য বিজেপি-র।

একের পর এক বিজেপি নেতার বাংলা ভাগ করার দাবির বিরুদ্ধে মঙ্গলবার মুখ খোলেন অধীর। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ‘‘এটা পরিকল্পিত প্রচার, এটা বিজেপি-র নয়, আরএসএস-এর অ্যাজেন্ডা। উত্তরবঙ্গকে আলাদা করো, দক্ষিণবঙ্গকে আলাদা করো, উত্তরপ্রদেশকে তিনভাগে ভাগ করো, সেখানে মুসলিমদের বিচ্ছিন্ন করে দাও। এসব আরএসএস-এর পরিকল্পনা। ওরা যে এসব বলছে তা হঠাৎ করে বলছে তা নয়, এটা ওদের সার্বিক পরিকল্পনার অঙ্গ। রাজ্যগুলোকে ভাগ করেই তারা তাদের রাজনৈতিক লক্ষ্য সাধন করতে তৎপর হয়েছে। বিজেপি ভয় পাচ্ছে। কারণ, তারা বুঝে গেছে ২০২৪ সালে মোদীর চমক আর কাজ করবে না। তাই ছলে, বলে ও কৌশলে নির্বাচন কী ভাবে জেতা যায়, তার পরিকল্পনা করছে।’’

Advertisement

অধীরের বক্তব্য, ‘‘উত্তরবঙ্গ আলাদা রাজ্য দাবি করা হচ্ছে। এটা ওদের সর্বস্তরের নেতাদের অনুমোদন নিয়েই বলা হচ্ছে। কারণ, এটা আরএসএস-র অ্যাজেন্ডা।’’ প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদী আরএসএস-র অ্যাজেন্ডা মেনে চলেন বলেই প্রধানমন্ত্রী পদে আছেন। না হলে ওঁকেও সরে যেতে হত।’’

অধীরের দাবি, ‘‘যেহেতু বিজেপি এ রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে পারেনি, তাই এ সব বলে বাংলার রাজনৈতিক বাতাবরণকে খারাপ করার চেষ্টা করছে। বাংলার মানুষকে এটা বুঝতে হবে। রাজ্য জুড়ে প্রচার চালাতে হবে। সংবিধানের ৩ নম্বর অনুচ্ছেদ প্রয়োগ করে কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্য বিভাজন করতেই পারে। এই অধিকার তাদের আছে। আমার আশঙ্কা আজকে ওরা ক্ষমতাতে আছে তাই সেই অধিকার প্রয়োগ করতে পারে। এই জঘন্য পরিকল্পনা তারা দেশ জুড়েই চালাচ্ছে।’’

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement