×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

সভায় দিলীপের নাগরিকত্বের তাস

নিজস্ব সংবাদদাতা 
কুপার্স ও বাদকুল্লা২৭ নভেম্বর ২০২০ ০১:৫৬
সভায় দিলীপ। নিজস্ব চিত্র

সভায় দিলীপ। নিজস্ব চিত্র

উদ্বাস্তু শহরে এসে নাগরিকত্ব ইস্যুই তুলে ধরলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “বিজেপি ক্ষমতায় এলে এখানকার সব উদ্বাস্তুকে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। আমাদের উপর ভরসা রাখুন।”

দিলীপ এ দিন এও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন, কুপার্সের মানুষ তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন না। তিনি বলেন, ‘‘এ বার সেটা হবে না। মানুষ যাতে ভোট দিতে পারেন, সেই ব্যবস্থা করা হবে।’’

পরিযায়ী শ্রমিক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “এই রাজ্য থেকে যুবকরা বিজেপিশাসিত বিভিন্ন রাজ্যে কাজ করতে যান। আমরা যে রাজ্যে ক্ষমতায় এসেছি, সেখানে বেকার যুবকদের কাজ হয়েছে।’’

Advertisement

দিলীপের সভা প্রসঙ্গে কুপার্স শহর তৃণমূলের সভাপতি তথা কুপার্স নোটিফায়েডের ভাইস চেয়ারম্যান দিলীপকুমার দাস বলেন, “আমরা তো নাগরিক। আমাদের ভোটে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়। এখানে এ সব টোপ দিয়ে কিছু হবে না। ওদের মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে আগামিকাল বিকেলে শহরে প্রতিবাদ মিছিল করা হবে।”

অন্য দিকে, এ দিন কৃষ্ণনগরের কাছে আসাননগরে বাপি ঘোষের খুনের প্রতিবাদ সভাতেও যান দিলীপ। সেই সভায় বিজেপিতে যোগ দেন জেনারেল মেডিসিনের চিকিৎসক আমোদ প্রসাদ যাদব। সম্প্রতি তাঁকে শক্তিনগর জেলা হাসপাতাল থেকে কোচবিহার জেলার মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে বদলি করা হয়েছে। বেশ কিছু দিন ধরেই তাঁর বিজেপিতে যোগদানের বিষয় নিয়ে জল্পনা শোনা যাচ্ছিল। চিকিৎসকদের অনেকেই মনে করেন, তাঁর এই বিজেপি ঘনিষ্ঠতার কারণেই তাকে এত দূরে বদলি করে দেওয়া হয়েছে।

এ দিন বাদকুল্লায় এসে রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন বিজেপির মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। তিনি বলেন, ‘‘ধর্ষণকারীদের আড়াল করা হচ্ছে। তাদের ভোটের সময়ে এবং নানা অসামাজিক কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। এই রাজ্যে মহিলাদের সুরক্ষা নেই। আমি এখানে বিচার চাইতে এসেছি।’’

Advertisement