Advertisement
২১ জুন ২০২৪
Shantipur Incident

বিজেপি নেতার ভাইঝিকে ধর্ষণের অভিযোগ, তৃণমূল নেতার পুত্র গ্রেফতার! ‘প্রেম ছিল’, দাবি শাসকদলের

সোমবার সন্ধ্যায় এক আত্মীয়কে বাড়ি পৌঁছে দিতে গিয়েছিলেন ওই নাবালিকার মা। অভিযোগ, আচমকা শোওয়ার ঘরে ঢুকে নাবালিকাকে গোয়ালঘরে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন প্রতিবেশী এক যুবক।

—প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
শান্তিপুর শেষ আপডেট: ২৬ মার্চ ২০২৪ ১৮:৩০
Share: Save:

দোলের রাতে এক নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে চাঞ্চল্য নদিয়ার শান্তিপুরে। বিজেপির অভিযোগ, তাদের এক নেতার ভাইঝিকে ধর্ষণ করেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতার ছেলে। পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করলেও তাঁর বাড়ির সদস্যরা পলাতক। ওই ঘটনার প্রেক্ষিতে ২০২২ সালের নদিয়ার হাঁসখালির ঘটনার তুলনা টেনে শাসকদলকে আক্রমণ করেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। অন্য দিকে, তৃণমূলের দাবি, ভোটের আগে তাঁদের ‘সক্রিয় সমর্থক’কে ফাঁসানোর চক্রান্ত করছে বিজেপি। মঙ্গলবার দিনভর এ নিয়ে শোরগোল এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, নির্যাতিতা নাবালিকা এবং পিতৃহীনা। মায়ের সঙ্গে থাকে সে। সোমবার সন্ধ্যায় এক আত্মীয়কে বাড়ি পৌঁছে দিতে গিয়েছিলেন ওই নাবালিকার মা। অভিযোগ, আচমকা শোওয়ার ঘরে ঢুকে নাবালিকাকে গোয়ালঘরে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন প্রতিবেশী এক যুবক। শারীরিক নির্যাতনের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়ে নাবালিকা। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয় তার। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সে। নির্যাতিতার মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আনন্দবাজার অনলাইনকে ওই মহিলা বলেন, ‘‘আমি ঘণ্টা খানেকের জন্য বাড়িতে ছিলাম না। বাড়িতে এসে দেখি গোয়ালঘর রক্তে ভেসে যাচ্ছে। মেয়ের পোশাক ছেঁড়া। মেয়েকে জিজ্ঞাসা করতে গোটা ঘটনা আমাকে খুলে বলে... ওর শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। আমি অবিলম্বে অভিযুক্তের শাস্তি চাই।’’

বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, নির্যাতিতা নাবালিকা বিজেপির বুথ সভাপতি ভাইঝি। মঙ্গলবার ওই ঘটনা বর্ণনা করে সমাজমাধ্যমে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন শুভেন্দু। বিজেপি জানিয়েছে, নির্যাতিতার বাড়িতে একটি প্রতিনিধি দল পাঠাচ্ছে তারা। এই ঘটনা প্রসঙ্গে রানাঘাট কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী জগন্নাথ সরকার বলেন, ‘‘শুধু পরিবার বিজেপি করে বলে এক নাবালিকাকে পরিকল্পিত ভাবে ধর্ষণ করেছেন তৃণমূল নেতার ছেলে। শুধু ওই অভিযুক্তই নন, তাঁর পরিবারের প্রত্যেককে গ্রেফতার করতে হবে। প্রশাসনকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।’’ অন্য দিকে, তৃণমূলের দাবি, ‘‘দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল দু’জনের। সেখান থেকে যৌন সম্পর্কের চেষ্টা করেন ওই যুবক। এর সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই।’’ শান্তিপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি কানাই দেবনাথ বলেন, ‘‘এখানে ধর্ষণের কোনও গল্পই নেই। ওই তরুণ-তরুণীর দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক। শুধু তৃণমূল সমর্থক বলেই যুবককে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে।’’

পুলিশের দাবি, অভিযোগ দায়ের হতেই পদক্ষেপ করেছে তারা। রাতভর তল্লাশি চালিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ নিয়ে রানাঘাট পুলিশ জেলার সুপার সানি রাজ বলেন, ‘‘অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি তদন্ত চলছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

POCSO Case Shantipur
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE