×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

শিলিগুড়িতে অশোক, ফিরহাদ এক মঞ্চে, কটাক্ষ দিলীপের

নিজস্ব সংবাদদাতা
শিলিগুড়ি৩০ নভেম্বর ২০২০ ১৯:৩১
দু’পক্ষের সদিচ্ছাতেই শেষ পর্যন্ত সোমবারের অনুষ্ঠানে পাশাপাশি বসতে দেখা গেল যুযুধান দু’পক্ষের হেভিওয়েট নেতাদের।

দু’পক্ষের সদিচ্ছাতেই শেষ পর্যন্ত সোমবারের অনুষ্ঠানে পাশাপাশি বসতে দেখা গেল যুযুধান দু’পক্ষের হেভিওয়েট নেতাদের।

এক মঞ্চে দেখা গেল শিলিগুড়ি পুরবোর্ডের প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য ও রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমকে। শেষ ১০ বছরে কখনওই এ ভাবে মঞ্চ ভাগ করে নিতে দেখা যায়নি প্রাক্তন ও বর্তমান পুরমন্ত্রীকে। সোমবার শিলিগুড়ির কাছারি রোডে ছিল গাঁধী মূর্তি উন্মোচনের অনুষ্ঠান। সেখানেই এক মঞ্চে পাশাপাশি বসলেন দু’জনে। যদিও আজকের অনুষ্ঠান আগে থেকেই ঠিক ছিল। রবিবার সন্ধ্যায় অশোক ভট্টাচার্য জানিয়েছিলেন, ‘‘যেহেতু পুরমন্ত্রীর উদ্যোগে এই মূর্তির জমি আমরা পেয়েছি, তাই উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে ওঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। উনি থাকবেন কথা দিয়েছেন।’’

শিলিগুড়ি পুরবোর্ড আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছিলেন, ‘‘এখানে রাজনৈতিক পরিচয়ের কোনও বিষয় নেই। গাঁধী মূর্তি উন্মোচনের অনুষ্ঠানে রাজনীতি খোঁজা উচিত নয়।’’ দু’জনের সদিচ্ছাতেই শেষ পর্যন্ত সোমবারের অনুষ্ঠানে পাশাপাশি বসতে দেখা গেল যুযুধান দু’পক্ষের হেভিওয়েট নেতাদের। এছাড়াও এদিন মঞ্চে ছিলেন কংগ্রেস বিধায়ক শঙ্কর মালাকারও। সোমবারের সভায় দু’জনই এ দিন নিশানা করেন বিজেপিকে।

আরও পড়ুন: সারদা-নারদা এবং বিজেপি নিয়ে কল্যাণের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ অপরূপা 

Advertisement

যদিও এই নিয়ে কটাক্ষ করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধির এক মঞ্চে থাকা নিয়ে সোমবার দিলীপ কটাক্ষের সুরে বলেন, ‘‘এত দিন ধরে বিধানসভায় যে ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে গলা ফাটিয়েছেন অশোক ভট্টাচার্য। আজ সেই অশোক ভট্টাচার্যর সঙ্গে ফিরহাদ হাকিম এক মঞ্চে এসেছেন। তার মানে বুঝতে হবে ‘ডাল মে কুছ কালা হ্যায়’।’’

আরও পড়ুন: কোনও মুসলিমকে ভোটের টিকিট দেব না, ঘোষণা বিজেপি মন্ত্রীর

Advertisement