×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

করোনা আতঙ্কের মধ্যে লক্ষাধিক টাকার মালপত্র চেটে দিলেন এক মহিলা

সংবাদ সংস্থা
স্যাক্রামেন্টো ১০ এপ্রিল ২০২০ ১২:০৩
জেনিফার ওয়াকার। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

জেনিফার ওয়াকার। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে সবাইকে মুখোশ পরতে বলা হচ্ছে, যাতে হাঁচি, কাশি এমনকি কথা বলার সময় লালার সঙ্গে ভাইরাস ছড়িয়ে না পড়ে। আর এই অবস্থায় এক মার্কিন মহিলা সুপারমার্কেটে প্রায় দেড় লাখ টাকার মালপত্র চেটে দিলেন।

আমেরিকার সাউথ লেক টাহোয়ে পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, তাঁরা স্থানীয় এক সুপারমার্কেট থেকে ফোন পান। তাঁদের কাছে এক মহিলার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানো হয়। ফোন পেয়েই তাঁরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান। ওই সুপারমার্কেটে গহনাও বিক্রি হয়।

সুপার মার্কেটের কর্মীরা তদন্তকারী পুলিশ অফিসারদের এক মহিলাকে দেখান। পুলিশ কর্মীদের জানানো হয় ওই মহিলা সুপারমার্কেট থেকে একের পর এক গহনা তুলে চেটে চেটে তা হাতে পারতে থাকেন।

Advertisement

আরও পড়ুন: দাঁড়িয়ে চিকিৎসকদের স্বাগত জানালেন দিল্লির বিলাসবহুল হোটেলের কর্মীরা

পুলিশ ওই মহিলাকে গ্রেফতার করে। দেখা যায় তাঁর ট্রলিতে মাংস, মদ-সহ প্রচুর জিনিসপত্র তুলেছেন। সুপারমার্কেট থেকে তিনি যা জিনিস নিয়েছেন তার মোট মূল্য প্রায় ১৮০০ মার্কিন ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় এক লাখ ৩৬ হাজার ৬৬৯ টাকা)। সেই সব জিনিসেই তাঁর লালারস ছড়িয়ে দিয়েছেন বলে সন্দেহ। যে জিনিসপত্র নিয়েছেন, সেগুলির দাম মেটানোর মতো অবস্থা তাঁর ছিল না বলেই মনে করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: লকডাউনে উপেক্ষা করে বাইরে বার হওয়া লোকজনদের খুঁজে বেড়াচ্ছে ড্রোন

পুলিশ ওই মহিলার পরিচয় জানতে পেরেছে। বছর তিপান্নর ওই মহিলার নাম জেনিফার ওয়াকার, ক্যালিফর্নিয়ার বাসিন্দা। জেনিফারের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

Advertisement