Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

মেয়ে পড়াশোনা করছে কি না দেখতে নজরদারি পোষ্যের

সংবাদ সংস্থা
বেজিং ১৪ মে ২০১৯ ১২:৪৫
হোমওয়ার্কের সময় পাহারা দিচ্ছে পোষ্য। অলঙ্করণ: তিয়াসা দাস।

হোমওয়ার্কের সময় পাহারা দিচ্ছে পোষ্য। অলঙ্করণ: তিয়াসা দাস।

আপনার বাড়ির দুষ্টু ছেলে বা মেয়েটি ঠিক মতো পড়াশোনা করছে কিনা, কী করে লক্ষ্য রাখবেন? নিজে দেখতে না পারলে বাড়ির লোকজনকে দায়িত্ব দেবেন বা গৃহশিক্ষক রাখবেন। কিন্তু ভাবুন এদের কাউকেই যদি রাখা সম্ভব না হয় তাহলে? পরীক্ষা করে দেখতে পারেন এই চৈনিক পদ্ধতি।

দক্ষিণ-পশ্চিম চিনের গুইঝোউ প্রদেশের বাসিন্দা জু লিয়াং, মেয়ে হোমওয়ার্কে ফাঁকি দিচ্ছে কিনা, দেখার জন্য বাড়ির পোষা কুকুরকে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। আর এই কুকুরের কড়া নজর দেখলে আপনিও অবাক হয়ে যাবেন।

লিয়াং জানিয়েছেন, প্রথমে তিনি বাড়ির পোষা কুকুর ফান্টুয়ানকে প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন যাতে খাবার দাবারে বি়ড়ালরা মুখ না দেয়। সে কাজ ফান্টুয়ান দায়িত্বের সঙ্গে পালন করত। এরপর একদিন তিনি লক্ষ্য করলেন, হোমওয়ার্কের সময় তাঁর মেয়ে জিনিয়া বড্ড দুষ্টুমি করছে। তখন লিয়াং ভাবলেন যদি ফান্টুয়ানকে দায়িত্ব দেওয়া হয় মেয়ের হোমওয়ার্কের দিকে নজর রাখার জন্য।

Advertisement

যেমন ভাবা তেমন কাজ, ফান্টুয়ানকে প্রশিক্ষণ দিতে শুরু করলেন মেয়ের হোমওয়ার্কের ওপর নজর রাখার জন্য। পড়াশোনার সময় মেয়ে যাতে কোনও ভাবেই মোবাইলে ব্যস্ত না হয়ে পড়ে। কাজও দিল লিয়াংয়ের এই পরিকল্পনা।

আরও পড়ুন : বার বার কুকুরকে ঘুষ খাইয়ে বাড়িতে ঢুকছে ভাল্লুক

আরও পড়ুন : ভিডিয়ো গেম খেললে এবার ফিট থাকবেন

জিনিয়াএখন হোমওয়ার্ক করতে বসলে, পোষ্য ফান্টুয়ান তার পড়ার টেবিলে দু’ পা তুলে তীক্ষ্ণ দৃষ্টিতে নজর রাখে। কোনও ভাবেই জিনিয়াকে মোবাইলে হাত দিতে দেয় না।

আর জিনিয়া বলছে, ফান্টুায়ানের এই ভূমিকায় তার মোটেই অসুবিধা হয় না। বরং হোমওয়ার্কের একঘেয়েমি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। ফান্টুয়ান সামনে থাকলে তার মনে হয় একজন সঙ্গী রয়েছে, যেমন কোনও সহপাঠী সঙ্গে থাকলে মনে হয় তেমনই।

আরও পড়ুন

Advertisement