• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

যাত্রী নিয়ে ফের ছুটল অটো, জারি নির্দেশিকা

Auto
সতর্কতা: দু’জন করে যাত্রী নিয়ে চলছে অটো। বুধবার, নাগেরবাজারে। নিজস্ব চিত্র

চতুর্থ পর্বের লকডাউনের মধ্যেই বুধবার থেকে শহরের রাস্তায় নামল অটো। এ দিন থেকে কলকাতা এবং শহরতলির বেশ কিছু রুটে অটো চলাচল শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে এ দিনই অটোয় যাত্রী পরিবহণ নিয়ে আদর্শ আচরণবিধি প্রকাশ করেছে রাজ্য পরিবহণ দফতর। সেই আচরণবিধিতে অটো এবং ই-রিকশার ক্ষেত্রে সর্বাধিক দু’জন করে যাত্রী তোলার কথা বলা হয়েছে। তবে অটোর ভাড়া নিয়ে তাতে কোনও উল্লেখ নেই।

সরকারি নির্দেশিকায় অটোভাড়া নিয়ে কিছু বলা না থাকায় অনেক জায়গাতেই স্থানীয় ভাবে অটো ইউনিয়ন এবং পুলিশ-প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকের ভিত্তিতে ভাড়া স্থির করা হচ্ছে বলে খবর। বেশ কিছু রুটে এ দিন যাত্রীদের থেকে দ্বিগুণ বেশি ভাড়া চাওয়া হয়েছে। কোথাও আবার বেশি যাত্রী নিয়ে অটো চালানোর মতো অভিযোগও উঠেছে। প্রাথমিক ভাবে বহু রুটে একই দিনে সব অটো না নামিয়ে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে চালানো হবে বলে স্থির হয়েছে। ফলে অনেক রুটেই এ দিন মোট অটোর মাত্র এক তৃতীয়াংশ বা অর্ধেক রাস্তায় নেমেছে। আইএনটিটিইউসি-র উত্তর কলকাতা জেলার নেতা মানা চক্রবর্তী বলেন, ‘‘অটোচালকেরা দীর্ঘদিন বসে রয়েছেন। পরিষেবা শুরু হওয়া খুব জরুরি ছিল।’’  

এ দিকে এ দিন সকালে সরকারি নির্দেশিকা সময় মতো না পৌঁছনোয় পরিষেবা চালু করা নিয়ে টালিগঞ্জ-রাসবিহারী এবং টালিগঞ্জ-হাজরা রুটের অটোচালকদের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে স্থানীয় ট্র্যাফিক গার্ড পরিষেবা বন্ধ করে দেয়। পরে নির্দেশিকা হাতে এলে পুলিশ ফের অটো চালানোর অনুমতি দেয়।

সরকারি ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে যে, করোনা সংক্রমিত এলাকা বা কন্টেনমেন্ট জ়োনের মধ্যে অটো চালানো যাবে না। অটোচালকের মাস্ক-গ্লাভস পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। প্রতি দিন জীবাণুনাশক দিয়ে অটো ধোয়ার কথাও বলা হয়েছে। যাত্রীদের ক্ষেত্রেও মাস্ক-স্যানিটাইজ়ার সঙ্গে রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। স্যানিটাইজ়ার রাখতে হবে অটোচালককেও। তবে দু’জনের বেশি যাত্রী নেওয়ার জন্য যাতে যাত্রীরা কোনও ভাবেই চালককে অতিরিক্ত চাপ না দিতে পারেন, তা দেখার কথা বলা হয়েছে ওই নির্দেশিকায়। করোনা সংক্রমণের হার বা পরিস্থিতি অনুযায়ী প্রয়োজনে অটোর রুটে বদল হতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: আবার পুলিশের অন্দরে করোনা, আক্রান্ত এ বার ১৪

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন