কয়েক মাস আগে নারকেলডাঙায় স্কুলের সামনেই এক কিশোরীকে হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল অটোচালকের বিরুদ্ধে। কিন্তু তখন পকসো আইনে মামলা রুজুই করেনি পুলিশ। 

এ বার বেলেঘাটা থানা এলাকায় সেই কিশোরীকেই নাগাড়ে যৌন হেনস্থা করার অপরাধে গৌর দত্ত নামে সেই অটোচালককে তিন বছরের সাজা দিলেন বিচারক। শনিবার শিয়ালদহে পকসো বিশেষ আদালতে এই রায় দিয়েছেন বিচারক জীমূতবাহন বিশ্বাস। ১৬ বছরের মেয়েটি বারণ করা সত্ত্বেও তাকে অনুসরণ করে স্কুলে যাওয়ার পথে যৌন হেনস্থার অভিযোগে পকসো আইনের ৮ নম্বর ধারায় দোষী সাব্যস্ত হন ৩২ বছরের অটোচালক। গত ৭ অগস্ট মেয়েটির মা বেলেঘাটা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। পকসো আদালতের বিশেষ আইনজীবী বিবেক শর্মার কথায়, ‘‘এর আগে পকসো আইন না প্রযোগ করে জামিনযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের হয়েছিল। বেলেঘাটা-শিয়ালদহ রুটের ওই অটোচালক ছাড়া পেয়ে যান। ফের একই কাজ করতে গিয়ে তিনি ধরা পড়লেন।’’ ১৬ বছরের নাবালিকাকে তাঁর দ্বিগুণ বয়সী যুবকের এ ভাবে যৌন হেনস্থার মধ্যে সামাজিক অবক্ষয়ের নমুনা দেখা যাচ্ছে বলে বিচারক তাঁর রায়ে আক্ষেপ করেছেন।