মিলন মেলা প্রাঙ্গনের সামনে হঠাৎ থমকাল গাড়ির গতি। কিছু একটা যেন উপর থেকে এসে পড়ল রাস্তায়! সঙ্গে বিকট শব্দ। গাড়ি থামিয়েই ছুটলেন কয়েক জন। সামনে গিয়ে দেখলেন, রক্তে ভেসে যাচ্ছে গোটা রাস্তা। পাশেই ছটফট করছেন এক যুবক।

প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে এমন বর্ণনা শুনে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে ছুটে যান কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীরা। সঙ্গে সঙ্গে পৌঁছয় প্রগতি ময়দান থানার পুলিশ। দ্রুত ওই যুবককে অ্যাম্বুল্যান্স করে হাসপাতালেও নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু এর পরেও তাঁকে বাঁচানো যায়নি।

ওই যুবক কী ভাবে মা উড়ালপুল থেকে নীচে পড়ে গেলেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাঁর পরিচয় জানা যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: সন্তান না হওয়ায় একঘরে করেছিল সমাজ, ‘প্রতিশোধ’ নিয়ে পদ্মশ্রী পেলেন থিম্মাক্কা

পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, যুবক আত্মহত্যা করতে পারেন। তবে তাঁকে কেউ ধাক্কা দিয়েছিল কি না, তাও দেখা হচ্ছে। সোমবার সকাল সাতটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। ওই এলাকার সিসিটিভি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: স্বপ্ন পূর্ণ না হলে জনতাই পেটাবে, মোদীকে বিঁধলেন গডকড়ী

পুলিশ সূত্রে খবর, এতটা উঁচু থেকে পড়ার ফলে মাথা থেঁতলে যায় যুবকের। শরীরের বিভিন্ন অংশের হাড়ও ভেঙে যায়। মা উড়ালপুল থেকে আত্মহত্যার ঘটনা, আগে ঘটেনি। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।