Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
SET

পশ্চিমবঙ্গের সেট পরীক্ষার বিস্তারিত সিলেবাস ও পরীক্ষা কাঠামো

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পড়াতে হলে পরীক্ষার্থীদের সেট পরীক্ষায় বসতে হয়। তাই প্রস্তুতি শুরুর আগে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার কাঠামো বা পরীক্ষার সিলেবাস জেনে নিতে হবে।

পশ্চিমবঙ্গের  SET পরীক্ষা

পশ্চিমবঙ্গের SET পরীক্ষা সংগৃহীত ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৪:২২
Share: Save:

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর বা লেকচারশিপ বা জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপ-এর জন্য নির্বাচিত হতে পরীক্ষার্থীদের রাজ্যস্তরে স্টেট এলিজিবিলিটি টেস্ট বা সেট পরীক্ষায় বসতে হয়। পশ্চিমবঙ্গ কলেজ সার্ভিস কমিশন এই পরীক্ষার আয়োজন করে। গত মাসের ১৬ তারিখ থেকে সেট পরীক্ষায় আবেদন জানানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। আবেদন জানানোর শেষ তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর। পরীক্ষার দিন ঘোষিত হয়েছে ২০২৩ সালের ৮ জানুয়ারি। প্রস্তুতি শুরু করার আগে তাই প্রার্থীরা পরীক্ষার কাঠামো বা পরীক্ষার সিলেবাস এই প্রতিবেদন থেকে বিস্তারিত জেনে নিতে পারেন।পরীক্ষার বিষয়—এই পরীক্ষার জন্য পরীক্ষার্থীদের নিম্নলিখিত বিষয়গুলি পড়তে হয়—

১. নৃতত্ত্ব

২. বাংলা

৩. রসায়ন

৪.কম্পিউটার বিজ্ঞান এবং অ্যাপ্লিকেশন

৫.ভূ-বিজ্ঞান,আবহবিজ্ঞান,সমুদ্রবিজ্ঞান এবং গ্রহবিজ্ঞান

৬.অর্থনীতি

৭.শিক্ষা

৮.ইলেকট্রনিক্স

৯.ইংরেজি

১০.জেনেরাল

১১.ভূগোল

১২.হিন্দি

১৩.ইতিহাস

১৪.গৃহবিজ্ঞান

১৫. আইন

১৬. জীববিদ্যা

১৭.গ্রন্থাগার ও তথ্য বিজ্ঞান

১৮. জীবন বিজ্ঞান

১৯.গণসংযোগ এবং সাংবাদিকতা

২০. সঙ্গীত

২১.নেপালি

২২.দর্শন

২৩.শারীরিক শিক্ষা

২৪.ভৌত বিজ্ঞান

২৫..রাষ্ট্রবিজ্ঞান

২৬.মনোবজ্ঞান

২৭.সংস্কৃত

২৮.সাঁওতালি

২৯.সমাজবিদ্যা

৩০.বাণিজ্য

৩১. উর্দু

এবার দেওয়া হল বিস্তারিত সিলেবাসের বিবরণ—

১. জেনেরাল— টিচিং অ্যাপটিটিউড,রিসার্চ অ্যাপটিটিউড,কম্প্রিহেনশন,যোগাযোগ,যৌক্তিক বিশ্লেষণ,ডেটা ইন্টারপ্রিটেশন,তথ্য ও সংযোগ প্রযুক্তি,মানুষ, উন্নয়ন এবং পরিবেশ-উন্নয়ন এবং পরিবেশ:,উচ্চশিক্ষা ব্যবস্থা।

২.নৃতত্ত্ব— নৃতত্বের ইতিহাস,বিকাশ, লক্ষ্য এবং সুযোগ,গবেষণা পদ্ধতি এবংপরিসংখ্যান,বিশ্লেষণের কৌশল,ল্যামার্কবাদ, নিও-ল্যামার্কবাদ, ডারউইনবাদ,বর্তমান প্রাইমেট,বিলুপ্ত প্রাইমেটদের জীবাশ্ম,প্রারম্ভিক হোমিনিডস,প্রাক-হোমিনিড গ্রুপ,হোমিনিড বিবর্তন,আধুনিক মানুষের উদ্ভব,আধুনিক মানুষের বৈচিত্র,ভারতীয় জনসংখ্যার জাতিগত শ্রেণিবিভাগ এবং বণ্টন,মানব জিনতত্ত্ব অধ্যয়নের পদ্ধতি ইত্যাদি।

৩. রসায়ন— কাঠামো এবং বন্ধন,রেডক্স প্রতিক্রিয়া,সরল জৈব এবং অজৈব যৌগের আইইউপিএসি নামকরণ,সাধারণ জৈব প্রতিক্রিয়া এবং প্রক্রিয়া ইত্যাদি।

৪. বাণিজ্য— ব্যবসায়িক পরিবেশ এবং আন্তর্জাতিক ব্যবসা,অ্যাকাউন্টিং এবং অডিটিং,ব্যবসায়িক অর্থনীতি,ব্যবসার পরিসংখ্যান এবং গবেষণা পদ্ধতি,ব্যবসা ব্যবস্থাপনা এবং মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনা,ব্যাঙ্কিং ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইত্যাদি।

৫.কম্পিউটার সায়েন্স এবং অ্যাপ্লিকেশন— বিচ্ছিন্ন কাঠামো এবং অপ্টিমাইজেশান,গাণিতিক যুক্তি,সেট এবং সম্পর্ক,গণনা, গাণিতিক আবেশ, এবং বিচ্ছিন্ন সম্ভাবনা,গ্রুপ তত্ত্ব,গ্রাফ তত্ত্ব এবং অন্যান্য বিষয়ের নানারকম টপিক পরীক্ষায় থাকে।

পরীক্ষা কাঠামো

সেট পরীক্ষায় দু’টি পেপারে পরীক্ষা হয়। দু’টি পেপারেই অজেক্টিভধর্মী প্রশ্ন থাকে।প্রথম পেপারে ৫০টি অবজেক্টিভধর্মী প্রশ্ন থাকেএবং প্রতিটি প্রশ্নে ২ নম্বর করে থাকে। এই প্রশ্নগুলি প্রার্থীর যৌক্তিক ক্ষমতা, বোধগম্যতা, চিন্তাভাবনার ভিন্নতা এবং সাধারণ সচেতনতা পরীক্ষা করার জন্য উপস্থাপিত হয় । দ্বিতীয় পেপারে প্রার্থীর পছন্দ করা বিষয়ের উপর ১০০ টি অবজেক্টিভধর্মী প্রশ্ন থাকেএবং প্রতিটি প্রশ্নে ২ নম্বর করে থাকে। প্রথম পেপারে ১০০ ও দ্বিতীয় পেপারে ২০০ নম্বর থাকে। দ্বিতীয় পেপারের সব প্রশ্ন বাধ্যতামূক হয়। পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা কেন্দ্রে দেওয়া ওএমআর শিটে প্রথম পেপার এবং দ্বিতীয় পেপারের প্রশ্নের উত্তরগুলি চিহ্নিত করতে হয়। কোনও ভুল উত্তরের ক্ষেত্রে নেগেটিভ মার্কিং থাকে না এই পরীক্ষায়।

পরীক্ষার সময়—

প্রথম পেপারের পরীক্ষার জন্য ১ ঘণ্টা ও দ্বিতীয় পেপারের পরীক্ষার জন্য ২ ঘণ্টা ধার্য করা হয়।পরীক্ষার্থীদের পশ্চিমবঙ্গ কলেজ সার্ভিস কমিশনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট- https://wbcsc.org.in/wbcsc/-এ গিয়ে প্রয়োজনীয় বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে হবে পরীক্ষার প্রস্তুতি শুরুর আগে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE