‘কভি খুশি কভি গম’-এর টাইটেল সঙ এ বার অর্গাজম দৃশ্যে! তা-ও আবার সেই কর্ণ জোহরেরই শর্ট ফিল্মে, যিনি নিজেই কেথ্রিজি-রও পরিচালক। এই খবর সামনে আসতেই প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ লতা মঙ্গেশকরের পরিবার-পরিজনরা।

কী ভাবে এমন ‘নিম্ন রুচি’র কাজ করতে পারলেন কর্ণ, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মঙ্গেশকর পরিবারের একাধিক সদস্য। তাঁদের বক্তব্য, এতে গায়িকা শুধু নয়, গোটা মঙ্গেশকর পরিবার অস্বস্তিতে পড়েছে। হতাশ করেছে পরিবারকে। যদিও এ নিয়ে কর্ণ জোহরের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ‘লাস্ট স্টোরিজ’ (Lust Stories) নামে একটি শর্ট ফিল্ম, যা আসলে চারটি শর্ট ফিল্মের সমন্বয়। ছবিগুলি পরিচালনা করেছেন জয়া আখতার, কর্ণ জোহর, অনুরাগ কাশ্যপ এবং দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়। মুক্তির পরই ফিল্ম ক্রিটিকদের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা পেয়েছে ‘লাস্ট স্টোরিজ’।

আরও পড়ুন: তৈমুরের ছবি তুলতে চাওয়ায় রেগে গেলেন সইফ!

কী আছে সেই শর্ট ফিল্মে? কেনই বা বিতর্ক?

ওই শর্ট ফিল্মের একটি দৃশ্যে দেখানো হয়েছে, ছবির নায়িকা হস্তমৈথুন করছেন। অভিনয় করেছেন কিয়ারা আডবাণী। গল্পে তিনি নববিবাহিত এবং স্বামীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে অখুশি এক নারী। ফলে তিনি হস্তমৈথুন করেই নিয়ে যৌন খিদে মেটান। এই দৃশ্যেই অর্গাজমের সময় ব্যবহার করা হয়েছে ‘কভি খুশি কভি গম’-এর টাইটেল সঙ।

আর এই দৃ্শ্যেই চরম ক্ষুব্ধ লতা মঙ্গেশকরের পরিবার। মঙ্গেশকর পরিবারের ঘনিষ্ঠ এক জন মন্তব্য করেছেন, ‘‘লতা দিদির এই বয়সে কেন তাঁকে এ রকম অস্বস্তির মধ্যে ফেললেন কর্ণ? আমার এখনও মনে আছে ওই গান গাওয়ার সময় কতটা উচ্ছ্বসিত ছিলেন কর্ণ। দিদির (লতা মঙ্গেশকর) রেকর্ডিংয়ের পর করণ বলেছিলেন, একটা স্বপ্ন সত্যি হল। এখন সেই স্বপ্নই কেন দুঃস্বপ্নে পরিণত করলেন পরিচালক?’’

একই সঙ্গে তাঁর সংযোজন, ওই গানটি পারিবারিক বন্ধনের প্রতীক হয়ে উঠেছে। কার্যত ভজনের মতোই শ্রদ্ধা ভক্তিতে গাওয়া হয় গানটি। অথচ সেই গানকেই এমন একটা স্তরে নামিয়ে আনা হয়েছে, যা মঙ্গেশকর পরিবারকে হতাশ করেছে। তিনি বলেন, ‘‘এই ধরনের নোংরা বিষয় নিয়ে এখন দিদির এই বয়সে আর তাঁর সামনে এই প্রসঙ্গ তুলে তাঁকে অস্বস্তিতে ফেলতে চাই না।’’

আরও পড়ুন: ‘অন্দরকাহিনির শুটিং আমার কাছে বাঁচার এক্সকিউজ ছিল’