×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

অর্ণবকে সুরক্ষা দিয়েছিল আদালত, আমাদের নয় কেন? প্রশ্ন ‘তাণ্ডব’ নির্মাতাদের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৭ জানুয়ারি ২০২১ ১৭:১৪
‘তাণ্ডব’ পোস্টার

‘তাণ্ডব’ পোস্টার
ফাইল চিত্র

‘তাণ্ডব’ ছবির নির্মাতাদের সুরক্ষা দিতে নারাজ শীর্ষ আদালত। নির্মাতাদের আবেদনের উত্তরে নোটিস জারি করা হল বুধবার।

‘অ্যামাজন প্রাইম’-এর কার্যকর্তারা ও ‘তাণ্ডব’ ছবির নির্মাতা ও কলাকুশলীরা একটি আবেদন জানিয়েছিলেন আদালতে। বিতর্কিত ওয়েব সিরিজের পরিচালক, প্রযোজক, অভিনেতা-অভিনেত্রী এবং লেখকের আবেদন ছিল, গ্রেফতারি এড়ানোর জন্য তাঁদের রক্ষাকবচ দেওয়া হোক এবং বিভিন্ন শহরে দায়ের হওয়া একাধিক ফৌজদারি মামলার তদন্ত প্রক্রিয়াকে একটি শহরে নিয়ে আসা হোক।

বুধবার তাঁদের আবেদনের শুনানিতে বিচারপতি অশোক ভূষণ, বিচারপতি সুভাষ রেড্ডি এবং বিচারপতি এমআর শাহ-র বেঞ্চ সেই আর্জি খারিজ করে দিলেন।

Advertisement

আবেদনকারীদের আইনজীবীরা আদালতে যুক্তি রাখেন, যে আইনে সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামীকে জামিন দেওয়া হয়েছিল, একই ভাবে এই মামলার আবেদনকারীদের সুরক্ষা দেওয়া যাচ্ছে না কেন? কেবল অর্ণব নন, সংবাদ পাঠক অমীশ দেবগণের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছিল। তার স্পষ্ট উত্তর দেয়নি আদালত। তবে জানিয়েছে যে, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করা যাবে না।

১৫ জানুয়ারি ‘অ্যামাজন প্রাইম’-এ ‘তাণ্ডব’ মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই সারা দেশ উত্তাল। দেশের বিরাট অংশের মানুষ দাবি করেন, এই ওয়েব সিরিজে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে হিন্দুধর্মকে আঘাত করা হয়েছে। দেশের অন্তত ৬টি রাজ্যের পুলিশ বিভাগ থেকে নির্মাতা ও ওটিটি প্ল্যাটফর্মের বিরুদ্ধে গ্রেফতারির আশঙ্কা রয়েছে। এর পরেই নির্মাতারা আবেদন করেন শীর্ষ আদালতে।

৩ বিচারপতির বেঞ্চের রায় অনুযায়ী, ফৌজদারি দণ্ডবিধির ৪৮২ ধারা প্রয়োগ করে এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে চায় না আদালত। সেই সঙ্গে সুরক্ষা দিতেও নারাজ দেশের শীর্য আদালত। তবে অভিযুক্তরা সংশ্লিষ্ট আদালতে জামিনের আর্জি জানাতে পারবেন বলে জানান বিচারপতিরা।

Advertisement