• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সমঝে কথা বলুন, খামেনেইকে হুঁশিয়ারি ট্রাম্পের

Donald Trump Ali Khamenei
খামেনেইকে হুঁশিয়ারি ট্রাম্পের। —ফাইল চিত্র।

Advertisement

এ বার ইরানের শীর্ষ ধর্মীয় নেতা আয়াতোল্লা আলি খামেনেইকে সমঝে কথা বলার হুঁশিয়ারি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভুলবশত ইউক্রেনীয় বিমানে রকেট দাগার পর থেকেই ইরানের সর্বত্র সরকার বিরোধী আন্দোলন মাথাচাড়া দিয়েছে। তার জন্য মার্কিন সরকারকেই দুষেছেন খামেনেই। মার্কিন মদতে ইচ্ছাকৃত ভাবে সে দেশে অস্থিরতা তৈরি করা হচ্ছে, সোলেমানির আত্মত্যাগকে খাটো করে দেখানো হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। সেইসঙ্গে ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং জার্মানির মতো দেশগুলিকে আমেরিকার ‘দালাল’ বলেও উল্লেখ করেছেন। তাতেই চটেছেন ট্রাম্প। তাঁর মতে, শব্দ চয়নের ক্ষেত্রে আরও সতর্ক হওয়া উচিত খামেনেইয়ের। 

এর আগে, মধ্যরাতে ইরাকে মার্কিন ঘাঁটিতে রকেট হানাকে ‘আমেরিকার গালে সপাটে থাপ্পড়’ বলে মন্তব্য করেছিলেন খামেনেই। তার পর শুক্রবার ফের দু’দেশের টানাপড়েন নিয়ে মুখ খোলেন তিনি। ২০১২-র পর শুক্রবারই প্রথম জুম্মার নমাজের পর বক্তৃতা করেন খামেনেই। সেখানে তাঁর ভাষণে ইউক্রেনীয় বিমানে রকেট দাগার প্রসঙ্গ উঠে আসে। খামেনেই বলেন, ‘‘বিমান দুর্ঘটনা অত্যন্ত হৃদয় বিদারক ঘটনা, যাতে আমাদের মন দগ্ধ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু বিষয়টিকে এমন ভাবে তুলে ধরার চেষ্টা চলছে, যাতে মার্কিন হামলায় শহিদ মেজর জেনারেল কাসেম সোলেমানির আত্মত্যাগের কথা সকলে বেমালুম ভুলে যায়।’’

ইরানকে দমিয়ে রাখতে এই দুর্ঘটনাকে শত্রুপক্ষ হাতিয়ার করছে বলেও অভিযোগ তোলেন খামেনেই। চার দিকে ‘আমেরিকা নিপাত যাক’ স্লোগানের মধ্যেই তিনি বলেন, ‘‘বিমান দুর্ঘটনায় আমরা দুঃখ পেলেও, শত্রুরা কিন্তু খুশিই হয়েছে। আমাদের বাহিনী, সরকারকে নিয়ে প্রশ্ন তোলার সুযোগ পেয়ে গিয়েছে যে! মুখে যতই সাধারণ ইরানবাসীর পাশে থাকার কথা বলুন না কেন, বিদ্বেষপূর্ণ মার্কিন সরকারের মুখপাত্ররা আসলে মিথ্যা বলছেন।’’

ট্রাম্পের টুইট।

আরও পড়ুন: বিজেপির অভিনন্দন যাত্রা ঘিরে ধুন্ধুমার নন্দীগ্রামে, লাঠিচার্জ পুলিশের​

ব্রিটেন, জার্মানি এবং ফ্রান্সকে আমেরিকার ‘দালাল’ বলেও উল্লেখ করেন খামেনেই। তাঁর এই মন্তব্যের বিরুদ্ধেই টুইটারে ফুঁসে ওঠেন ট্রাম্প। তিনি লেখেন, ‘‘ইরানের ওই শীর্ষ নেতা আমেরিকা এবং ইউরোপ সম্পর্কে কদর্য কথা বলেছেন। ওঁদের অর্থনীতি ভেঙে পড়ছে, সাধারণ মানুষ দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। এমন অবস্থায় শব্দ চয়নে আরও সতর্ক হওয়া উচিত ওঁর।’’

আরও পড়ুন: ‘এঁদের জন্যই ধর্ষণ বন্ধ হয়নি’, ইন্দিরা জয়সিংহকে তোপ আশাদেবীর​

সরকারবিরোধী বিক্ষোভ চলাকালীন সম্প্রতি আন্দোলনকারীদের লক্ষ্য করে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠেছে ইরানের পুলিশের বিরুদ্ধে। তা নিয়েও তাদের একহাত নেন ট্রাম্প। টুইটারে তিনি লেখেন, ‘‘ইরানের সৎ মানুষরা, যাঁরা আমেরিকাকে ভালবাসেন, তাঁদের একটা এমন সরকার দরকার যারা কি না তাঁদের জন্য ভাববে, তাঁদের স্বপ্ন পূরণ করবে, না কি ধরে ধরে তাঁদের খুন করবে।  দেশকে ধ্বংসের পথে না নিয়ে গিয়ে, সন্ত্রাসের পথ থেকে সরে আসা উচিত ইরানের নেতাদের। ইরানকে ফের মহান করে তোলা উচিত তাঁদের।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন