• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রাক্তন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প

Donald Trump pardons ex-national security adviser Michael Flynn
ডোনাল্ড ট্রাম্প— ফাইল চিত্র।

দীর্ঘ টানাপড়েনের পরে দু’দিন আগে আনুষ্ঠানিক ভাবে হার স্বীকার করেছিলেন। আমেরিকার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প এ বার ক্ষমা প্রদর্শনের নজির সৃষ্টি করলেন। সে দেশের প্রাক্তন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করার কথা বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন ট্রাম্প।

ট্রাম্প তাঁর সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে টুইটারে লিখেছেন, ‘জেনারেল মাইকেল টি ফ্লিনকে সম্পূর্ণ ক্ষমা করার ঘোষণা করতে পেরে নিজেকে সম্মানিত মনে করছি। ফ্লেন এবং তাঁর পরিবারকে আমার শুভকামনা জানাই। জানি আপনারা এখন খুব ভাল আছেন’।

ট্রাম্পের টুইটের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ফ্লিন পোস্ট করেন আমেরিকার জাতীয় পতাকার ছবি, ইমোজি এবং বাইবেলের জেরেমিয়ার একটি বাণী— ‘তারা তোমার বিরোধিতা করবে কিন্তু হারাতে পারবে না। প্রভুর ঘোষণা, আমি তোমার সঙ্গে আছি এবং তোমাকে রক্ষা করব’।

আরও পড়ুন: সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বাড়ল আজও, ফের ৫০০ ছাড়াল দৈনিক মৃত্যু

২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্প জেতার পরে রুশ হস্তক্ষেপের অভিযোগ উঠেছিল। সে সময় ফ্লিন আমেরিকার তদন্তকারী সংস্থা এফবিআই-এর কাছে ট্রাম্পের নামে মিথ্যে কথা বলেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। এরই জেরে দায়িত্ব দেওয়ার মাত্র ২৩ দিনের মাথায় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ থেকে তাঁকে সরতে হয়েছিল। আদালতে ফ্লিন মিথ্যে বলার কথা স্বীকার করতেও বাধ্য হয়েছিলেন।

দোষ স্বীকারের পরে ফ্লিনের সাজা ঘোষণার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। কিন্তু বিদায়ী প্রেসিডেন্টের সৌজন্যে তিনি মুক্তি পেলেন।

আমেরিকার সেনার প্রাক্তন জেনারেল ফ্লিন একদা কট্টর ডোমোক্র্যাট সমর্থক ছিলেন। কিন্তু ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট ভোটের আগে রিপাবলিকান ট্রাম্পের টিমে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর বয়ানের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে এফবিআই আদালতে জানিয়েছিল, ২০১৬-র প্রেসিডেন্ট ভোটে জনমত প্রভাবিত করার উদ্দেশ্যে মস্কোর সাহায্য নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ২২ মাসের বিচারবিভাগীয় তদন্তের পরে ২০১৯ সালে ট্রাম্প এবং তাঁর সহযোগীদের নির্দোষ ঘোষণা করে আদালত।

আরও পড়ুন: সপ্তম পর্বের আনলকে নয়া করোনা নির্দেশিকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন