স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো বিমানবন্দর থেকে সোমবার সকাল ৮ টা ৫৫ মিনিটে টেনেরিফের উদ্দেশে উড়ে যাচ্ছিল এলএস১৫৫ বিমানটি। কিন্তু ঘণ্টাখানেক উড়ে যাওয়ার পর যাত্রীদের চা-কফি দিতে গিয়ে বিমান কর্মীরা দেখলেন বিমানে মজুত জল সব শেষ। এমনকি, বাথরুমেও জল নেই একফোঁটা। বিমানটি তখন আয়ারল্যান্ডের পশ্চিমাঞ্চল দিয়ে উড়ে যাচ্ছিল।

সঙ্গে সঙ্গে নিকটবর্তী এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের সঙ্গে যোগাযোগ করেন বিমানচালকরা। তার পরই বিমানের অভিমুখ পরিবর্তন করে ম্যাঞ্চেস্টার বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করানো হয় বিমানটিকে।

সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইন্স সংস্থা মুখপাত্র জানিয়েছেন, জলের সমস্যার জন্যই বিমানটির জরুরি অবতরণ করানো হয়েছে। তিনি আরও বলেছেন, ‘‘আমরা যাত্রীদের খেয়াল রাখি। তাই তাঁদের অন্য একটি বিমানে চড়িয়ে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।’’

যদিও এই ঘটনার জেরে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের বিরক্তি উগরে দিয়েছেন ওই বিমানের যাত্রীরা।

আরও পড়ুন: থার্মোমিটারকে প্রেগন্যান্সি টেস্ট কিট ভাবলেন প্রেমিক, তারপর...

(সারাবিশ্বের সেরা সব খবরবাংলায় পড়তে চোখ রাখতে পড়ুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)