• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘সপাটে থাপ্পড় কষিয়েছি’, ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর আমেরিকাকে কটাক্ষ খামেনেইয়ের

Donald trump Ali Khamenei
আমেরিকাকে কটাক্ষ খামেইনির। —ফাইল চিত্র।

Advertisement

মধ্যরাতের ক্ষেপণাস্ত্র হামলাকে আমেরিকার গালে সপাটে থাপ্পড় বলে বর্ণনা করলেন ইরানের শীর্ষ নেতা আয়াতোল্লা আলি খামেনেই। পশ্চিম এশিয়া থেকে অবিলম্বে আমেরিকার অস্তিত্ব মুছে ফেলতে হবে বলেও জানিয়ে দিলেন তিনি।  

কাসেম সোলেমানি হত্যার প্রতিশোধ হিসাবে মঙ্গলবার মধ্যরাতে ইরাকে মার্কিন সেনা ও যৌথ বাহিনী ব্যবহৃত দুই ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। তাতে কমপক্ষে ৮০ জন ‘মার্কিন জঙ্গি’ নিহত হয় বলে দাবি তাদের।

এর পরেই বুধবার দুপুরে তেহরানে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন খামেনেই। সেখানে তিনি বলেন, ‘‘গত রাতে সপাটে থাপ্পড় কষিয়েছি। তবে শুধুমাত্র সামরিক আক্রমণই যথেষ্ট নয়, সমগ্র পশ্চিম এশিয়া থেকে আমেরিকার বিষাক্ত উপস্থিতি মুছে ফেলাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’’

‘৮০ মার্কিন জঙ্গি খতম’, ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর বলল ইরান আরও পড়ুন

গত শুক্রবার বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হানায় মৃত্যু হয় ইরানের সেনা জেনারেল কাসেম সোলেমানির। তাতে প্রাণ হারান ইরাকের পার্লামেন্টারি বাহিনী ‘হাশেদ অল-শাবি’-র ডেপুটি চিফ আবু মহদি অল-মুহান্দিস-ও। এতে মার্কিন সরকারের উপর চটে রয়েছে ইরাক সরকারও। মার্কিন হামলায় তাদের দেশের সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘিত হয়েছে বলে মনে করছে তারা। যে কারণে দেশের সংসদে বিদেশি সেনা হটানোর প্রস্তাবও গৃহীত হয়েছে।

১৭৬ যাত্রী নিয়ে ইরানে ভেঙে পড়ল ইউক্রেনের বিমান, মৃত্যু সকলেরই আরও পড়ুন

এ দিন ইরাকের সেই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেন আয়াতোল্লা। তিনি বলেন, ‘‘আমেরিকা চায় ইরাক আগের মতো তাদের অনুগত হয়ে থাকুক, যাতে ইরান এবং সৌদি আরবের মতো একটি তেল সমৃদ্ধ দেশের নিয়ন্ত্রণ তাদের হাতে থাকে এবং সময় মতো যেমন ইচ্ছা তেমন ব্যবহার করতে পারে।’’ আমেরিকাকে গুন্ডা বলেও উল্লেখ করেন খামেনেই। তাই পরমাণু নিষেধাজ্ঞা নিয়ে তাদের সঙ্গে কোনও আলোচনায় যাওয়ার প্রশ্ন নেই বলে জানিয়ে দেন তিনি।

সোলেমানি হত্যা নিয়ে টানাপড়েন চলাকালীন এর আগে ইরানকে সতর্ক করে দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বদলা নিতে এলে ফল ভাল হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। তা নিয়ে নিজের দেশেই তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল তাঁকে। যার পর এ দিন মার্কিন বাহিনীর উপর হামলার পরেও নতুন করে হুঁশিয়ারি না দিলেও, মার্কিন বাহিনীর শক্তির কথা তেহরানকে মনে করিয়ে দেন তিনি। টুইটারে ট্রাম্প লেখেন, ‘‘সব কিছু ঠিক আছে। ইরাকে দু’টি সেনাঘাঁটি লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র দেগেছে ইরান। হতাহত এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত সব ঠিকই আছে। মার্কিন বাহিনী গোটা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী এবং সুসজ্জিত।’’ পরে এ নিয়ে আলাদা করে বিবৃতি দেবেন বলেও জানান ট্রাম্প।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন