• লস অ্যাঞ্জেলেস
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ঘরহারা ও জখম পশু-পাখির জন্য তহবিল ক্যালিফর্নিয়ায়

Animal
অসহায়: দাবানলে শুকিয়ে কাঠ মাটি। পুড়ে গিয়েছে ঘাস। খাবার আর জলের অভাবে মৃতপ্রায় লামা। ক্যালিফর্নিয়ার প্যারাডাইসে। এএফপি

দাবানলের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত শহরটায় কোনও বাড়ি আস্ত রয়েছে কি না, দেখতে গিয়েছিলেন জেফ হিল। ‘ক্যাম্প ফায়ার’ তত দিনে ছারখার করে দিয়েছে গোটা প্যারাডাইস শহর। সেখানকারই বাসিন্দা তিনি। এক জায়গায় গিয়ে চোখ আটকে যায় জেফের। পুড়ে যাওয়া একটি বাড়ির পিছনের দিকে সুইমিং পুলে জড়োসড়ো হয়ে শুয়ে একটা ঘোড়া। ‘পুল কভার’-এর মধ্যে এমন ভাবেই সে ফেঁসে, যে সেখান থেকে বেরিয়ে আসারও উপায় নেই। অনেক চেষ্টা করে জেফ শেষ পর্যন্ত ঘোড়াটিকে উদ্ধার করে পশু চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যান। গোটা ঘটনা নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেছেন জেফ। বেশ কয়েকটি ছবিও দিয়েছেন আটকে পড়া অসহায় ঘোড়াটির। জেফের বক্তব্য, আগুনের তাপ থেকে বাঁচতে কোনও ভাবে পুলের জলে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল ঘোড়াটি। কিন্তু ‘পুল কভার’-এর মধ্যে আটকে পড়ে সেখান থেকে বেরোতে পারেনি।

জেফের দেখা এই ঘটনা ব্যতিক্রম নয় একেবারেই। দিন যত গড়াচ্ছে, পশু-পাখিদের অসহায়তার ছবি আরও স্পষ্ট হচ্ছে উদ্ধারকারীদের কাছে। আর এটাও স্পষ্ট হচ্ছে, ক্যালিফর্নিয়ার বিধ্বংসী দাবানলে শুধু মানুষই নয়, বন্যপ্রাণীদের একটা বড় অংশও ভীষণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। দাবানলে প্রাণ গিয়েছে ৫০ জনের। তবে কতগুলি পশুর মৃত্যু হয়েছে, সেই সংখ্যাটা স্পষ্ট নয়। তবে উদ্ধারকারীরা জানিয়েছেন, আগুনে পুড়ে বা দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে এমন খরগোশ, বেড়াল, হাঁস, কুকুরের সংখ্যা কম নয়। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে, নিজেরা কোনও মতে গাড়ি নিয়ে অন্যত্র যেতে পারলেও পোষ্যদের বাড়িতে ছেড়ে গিয়েছেন অনেকে। অসহায় প্রাণীগুলি হয় ছটফট করতে করতে মারা গিয়েছে, অথবা সারা শরীরে ভয়াবহ পোড়ার ক্ষত নিয়ে আপাতত চিকিৎসা কেন্দ্রে ভর্তি। জেফের সেই ঘোড়া তো বটেই, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে পুড়ে কালো হয়ে যাওয়া একটা বে়ড়াল, একটি ল্যাব্রাডর আর জার্মান শেফার্ডের ছবিও। 

আহত পশুগুলিকে বাঁচাতে উদ্যোগ নিয়েছেন হলিউড অভিনেত্রী স্যান্ড্রা বুলক। সোশ্যাল মিডিয়ায় চাঁদা তোলার জম্য একটি পেজ খুলেছেন তিনি। যেখানে নিজেই প্রথমে এক লক্ষ ডলার দান করেছেন। 

রবিবার দাবানলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৬ জনে। নিখোঁজ হাজারেরও বেশি। শনিবার ক্যালিফর্নিয়ার পুড়ে যাওয়া প্যারাডাইস ও ম্যালিবু শহর ঘুরে দেখেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরে ট্রাম্প বলেন, ‘‘খুব দুঃখজনক ঘটনা। ক্যালিফর্নিয়ায় এত ভয়ানক ঘটনা আগে কখনও দেখিনি।’’ বিতর্ক জিইয়ে রেখে এ দিনও ট্রাম্প ক্ষয়ক্ষতির দায় চাপিয়েছেন বন দফতরের উপর। বলেন, ‘‘ক্যালিফর্নিয়ার বন দফতরের অব্যবস্থাই এই দুর্দশার জন্য দায়ী।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন