নিষিদ্ধ সংগঠন ও ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে গৃহীত প্রস্তাব কার্যকর করতে আইন আনল পাকিস্তান। পাক বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে, এই আইন অনুযায়ী রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে গৃহীত প্রস্তাব মেনে সব নিষিদ্ধ ব্যক্তি ও সংগঠনের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে পারবে পাক সরকার। সেই পদক্ষেপ করা শুরু হয়েছে বলেও দাবি তাদের। এখন নিষিদ্ধ সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবী শাখা ও অ্যাম্বুল্যান্সও বাজেয়াপ্ত করা যাবে বলে জানিয়েছে পাক সরকার।

তথ্যমন্ত্রী ফওয়াদ চৌধরি গত কাল সাংবাদিক বৈঠকে দাবি করেন, দিন গড়ালেই বোঝা যাবে পাক সরকার জঙ্গিদের বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ করেছে। পাক সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে, দেশে জঙ্গিদের নিয়ন্ত্রণ করতে তাদের সব ঘাঁটির উপরে জোরদার হামলার পরিকল্পনা চলছে। 

তবে পুলওয়ামা হামলার পিছনে যারা, সেই জইশ ই মহম্মদের বিরুদ্ধে কবে অভিযান চালানো হবে, সে ব্যাপারে কিছু জানাতে চাননি মন্ত্রী। পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি গত ২১ ফেব্রুয়ারির বৈঠকে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, জামাত উদ দাওয়া-সহ আরও একটি জঙ্গি প্রতিষ্ঠানকে ফের নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে। 

তবে পাক সংবাদমাধ্যমে স্পষ্ট করা হয়েছে যে, পুলওয়ামার পরে ভারতের চাপে এই অভিযান হতে চলেছে, এমনটা মনে করার কো‌ন‌ও কারণ নেই। এই সিদ্ধান্ত তার অনেক আগেই নেওয়া হয়েছিল।