যদি 'যথাযথ মর্যাদা' আর 'সমগুরুত্ব' দেওয়া হয়, তবেই ভারতের সঙ্গে আলোচনার টেবিলে বসবে পাকিস্তান। সবক'টি বকেয়া সমস্যা মেটাতে ইসলামাবাদের সঙ্গে আলোচনায় বসার ব্যাপারটা এখন দিল্লির উপরেই নির্ভর করছে। টেলিভিশন চ্যানেল 'জিও নিউজ'কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি

সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের ১৯তম শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে পাক বিদেশমন্ত্রী কুরেশি এখন কিরঘিজস্তানের বিশকেকে। সেখান থেকেই তিনি টেলিফোনে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন পাক টেলিভিশন চ্যানেলটিকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে দ্বিতীয় এনডিএ সরকার শপথ নেওয়ার পর পরই দীর্ঘমেয়াদি সমস্যা মেটাতে ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসার ব্যাপারে ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন পাক বিদেশমন্ত্রী। আগ্রহ দেখিয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও।

সে কথা মনে করিয়ে দিয়েই পাক বিদেশমন্ত্রী বলেছেন, "পাকিস্তানের তরফে যা বলার তা তো বলেই দেওয়া হয়েছে। আমাদের কোনও তাড়াহুড়ো নেই। কোনও সমস্যাতেও নেই আমরা। আলোচনায় বসার সিদ্ধান্তটা এখন ভারতকেই নিতে হবে। দিল্লি তৈরি হয়ে উঠতে পারলেই দেখবে, ইসলামাবাদও তৈরি রয়েছে। তবে যথাযথ মর্যাদা আর সমগুরুত্ব পেলেই ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসবে পাকিস্তান।"

আরও পড়ুন- ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসতে তৈরি আছি, বললেন পাক বিদেশমন্ত্রী​

আরও পড়ুন- অবিশ্বাস্য কূটনৈতিক ব্যর্থতায় ইসলামাবাদ​

কুরেশি বলেছেন, "আমরা কারও পিছনে ছুটতে চাই না। আমরা অনড় হয়েও থাকতে চাই না। কিন্তু ভোটের সময় যেমন ছিল ভারত (মোদী সরকার), এখনও তেমনই রয়েছে।"