• নিজস্ব প্রতিনিধি
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আফ্রিকার প্রতিনিধিদের ‘বাঁদর’ বলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রেগন

Regon
রোনাল্ড রেগন। ফাইল চিত্র

Advertisement

চল্লিশতম মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগনের একটি বর্ণবিদ্বেষমূলক অডিও রেকর্ডিং প্রকাশ্যে চলে এল বলে দাবি উঠতে শুরু করেছে। রেগন নাকি রাষ্ট্রপুঞ্জে আফ্রিকার প্রতিনিধিদের উদ্দেশে ‘বাঁদর’ শব্দটি ব্যবহার করেছিলেন। এমনকি আফ্রিকানরা ‘জুতো পরতেও অস্বস্তি বোধ করে’ বলেও মন্তব্য করেন রেগন। এই মন্তব্যের একটি অডিও রেকর্ডিং প্রকাশ্যে আসার পরই ফের বিতর্ক শুরু হয়েছে রেগনকে নিয়ে।

অভিনেতা থেকে রাজনীতিতে আসা রোনাল্ড রেগন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের পদে ছিলেন ১৯৮১ থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত। তার আগে তিনি যখন ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর ছিলেন, সেই সময় রাষ্ট্রপুঞ্জে একটি ভোটাভুটি প্রসঙ্গে তত্কালীন প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সনের সঙ্গে ফোনে কথা বলছিলেন। ১৯৭১ সালের ঘটনা সেটি। সেই সময় রাষ্ট্রপুঞ্জ তাইওয়ানের জায়গায় চিনকে স্বীকৃতি দিয়েছিল। সেই ভোটে তানজানিয়ার প্রতিনিধি দলের প্রতিক্রিয়া দেখে তাঁদের বাঁদর বলে মন্তব্য করেন রেগন। এমনকি বলেন ‘আজও ওরা জুতো পরতে অস্বস্তি বোধ করে’।

এই ফোন কল রেকর্ডিংটি প্রকাশ্যে এসেছে। এটি প্রথম প্রকাশ পায় আটলান্টিক ম্যাগাজিনে। প্রতিবেদনটি লিখেছিলেন টিম নাফতালি। যিনি ২০০৭ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত রিচার্ড নিক্সন প্রেসিডেন্সিয়াল লাইব্রেরি অ্যান্ড মিউজিয়ামের ডিরেক্টর ছিলেন।

আরও পড়ুন : সানি লিয়নের নম্বর ‘ফাঁস’, প্রতিদিন অশ্লীল দাবি নিয়ে যাচ্ছে অন্তত ২০০ ফোন

আরও পড়ুন : রোলারকোস্টারে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা তরুণীর

এই প্রতিবেদন ২০০০ সালে প্রথম প্রকাশ পায়। কিন্তু তখন বর্ণবিদ্বেষী ওই অংশগুলি বাদ দিয়ে তা প্রকাশ্যে আসে। সম্প্রতি ওই বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য যুক্ত অডিও রেকর্ডিংটি প্রকাশ্যে এসেছে। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন